Advertisement
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কারচুপির ভোট, গণনার আগেই দাবি শরিফদের

পানামা পেপার্স দুর্নীতিতে নাম জড়ানোয় সুপ্রিম কোর্ট তাঁকে প্রধানমন্ত্রী পদের অযোগ্য ঘোষণা করে। সরকার পতনের কারণে মঙ্গলবার যে সাধারণ নির্বাচনটি হল, তাতে তিনি অংশ নিতে পারেননি। কারণ সদ্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ় শরিফ এখন জেলে।

শাহবাজ় শরিফ। ফাইল চিত্র।

শাহবাজ় শরিফ। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ২৭ জুলাই ২০১৮ ০৩:১৮
Share: Save:

পানামা পেপার্স দুর্নীতিতে নাম জড়ানোয় সুপ্রিম কোর্ট তাঁকে প্রধানমন্ত্রী পদের অযোগ্য ঘোষণা করে। সরকার পতনের কারণে মঙ্গলবার যে সাধারণ নির্বাচনটি হল, তাতে তিনি অংশ নিতে পারেননি। কারণ সদ্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ় শরিফ এখন জেলে। তাঁর ভাই শাহবাজ় শরিফের নেতৃত্বেই ভোটে লড়ল পাকিস্তান মুসলিম লিগ। কিন্তু ৩০ শতাংশ ভোট গণনার পরে নির্বাচন কমিশন যে আংশিক ফল ঘোষণা করেছে, তাতে ৬৬টি আসন পেয়ে ইমরান খানের দলের চেয়ে অনেকটাই পেছিয়ে পড়েছে নওয়াজের দল। তবে তার আগেই এই নির্বাচনকে সাজানো ও কারচুপিতে ভরা অভিযোগ করে খারিজ করেছেন শাহবাজ়।

নির্বাচন শেষ হওয়ার পরে একটিও আসনের ফল তখনও ঘোষণা হয়নি। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পিএমএল নেতা শাহবাজ় বলেন, ‘‘পাকিস্তানের ইতিহাসে এত জালিয়াতির নির্বাচন আগে হয়নি। বহু জায়গায় ভোটগ্রহণ শুরু হওয়া মাত্রই বুথের পাহারায় থাকা সেনারা আমাদের দলের এজেন্টদের মেরে বার করে দিয়েছে।’’ জানান, তাঁদের সমর্থকদের ভোটকেন্দ্রে যেতেই দেওয়া হয়নি। ডেরা গাজি খানে বহু মানুষকে যে আটকে রাখা হয়েছিল, তার ভিডিয়োও রয়েছে তাঁদের হাতে। করাচিতেও এমন ঘটনা ঘটেছে। তিনি স্পষ্টই বলেন, ‘‘ইমরান খানকে তখতে বসাতে নির্বাচনের নাটক করা হল দেশে। সেনাদের হাতে আরও এক বার কণ্ঠরোধ হল পাকিস্তানের গণতন্ত্রের।’’

এর পরে কারিগরি সমস্যার যুক্তি দেখিয়ে কমিশন যখন ফল ঘোষণা স্থগিত করে দিল, তখন ফের সরব হলেন পিএমএল নেতারা। তাঁদের দাবি, সেনাদের চাপেই ফল ঘোষণা স্থগিত রেখেছে নির্বাচন কমিশন। ভোটের পরে এখন গণনাতেও কারচুপি করা চলছে। তবে নির্বাচন কমিশন সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন।

ভোট শেষ হওয়ার পরেই জেলে গিয়ে নওয়াজের সঙ্গে দেখা করেছিলেন শাহবাজ়। এই ভোট যে তাঁদের অস্তিত্বের প্রশ্ন, সেটা ভালই বোঝেন শরিফেরা। চেষ্টা করলে কারাবাস এড়িয়ে যেতে পারতেন নওয়াজ়। কারণ তিনি দেশত্যাগের সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু ভোটের সময়ে তিনি প্রবাসে থাকায় দলের সমর্থক ও ভোটারদের কাছে নেতিবাচক বার্তা যাবে আশঙ্কা করে দেশে ফিরে জেলে বন্দি থাকাই শ্রেয় মনে করেন শরিফ। সঙ্গে নিয়ে আসেন মেয়ে মরিয়মকেও, যাঁকে নিজের উত্তরসূরি হিসেবে তুলে ধরতে চাইছেন নওয়াজ়। মরিয়মও জেলে। কিন্তু নওয়াজ়দের এই কৌশল কাজে লাগল না। তার জন্য অবশ্য ভোটের কারচুপিকেই দায়ী করছে দল। শাহবাজ়ের অভিযোগ, পাকিস্তানে আরও এক বার
মানুষের রায়কে পাল্টে দিল প্রবল পরাক্রমী সেনাবাহিনী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE