Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Bijoy Dibas

President Kovind: বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রী রক্ষাই ভারতের লক্ষ্য, ঢাকায় বিজয় দিবসে বললেন রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ

রাষ্ট্রপতি ভাষণে ভূয়সী প্রশংসা করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। প্রধানমন্ত্রী হাসিনার পাশেই উপস্থিত ছিলেন তাঁর বোন শেখ রেহানা।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের রাষ্ট্রপতি।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের রাষ্ট্রপতি। টুইটার থেকে নেওয়া।

সংবাদ সংস্থা
ঢাকা শেষ আপডেট: ১৬ ডিসেম্বর ২০২১ ২১:১১
Share: Save:

মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর। ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রীর সুবর্ণ জয়ন্তী। এই উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের আমন্ত্রণে অতিথি হিসেবে সে দেশ সফরে গিয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকার জাতীয় সংসদ ভবনে ‘মহাবিজয়ের মহানায়ক’ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন তিনি। সেখানে ভারতের রাষ্ট্রপতির সঙ্গেই উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মহম্মদ আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রমুখ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আদর্শে উন্নত, সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলা গড়তে দেশবাসীকে শপথ পাঠ করান প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। ভারতের রাষ্ট্রপতি তাঁর ভাষণে বলেন, ‘‘প্রথম ৫০ বছরে কত বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে দুই দেশের মানুষের মধ্যে সুগভীর বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছে। এ বার সময় এসেছে তাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার।’’

রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ তাঁর ভাষণে তুলে ধরেন ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রীর কথা। তিনি বলেন, ‘‘ভারত বরাবরই বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রীকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এসেছে। আমাদের যতটুকু করা সম্ভব, বন্ধুত্ব অটুট রাখতে, আমরা তা করতে বদ্ধপরিকর।’’

রাষ্ট্রপতি নিজের ভাষণে ভূয়সী প্রশংসা করেন বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তথা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার। এ দিনের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী হাসিনার পাশেই উপস্থিত ছিলেন তাঁর ছোটবোন শেখ রেহানা। ভারতের রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হাসিনার প্রশংসা করে বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গঠনে তাঁর কন্যা, প্রধানমন্ত্রী হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে পরিশ্রমী বাঙালিরা এক রক্তিম ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।’’

হাসিনা তাঁর ভাষণে বলেন, ‘‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তানি শাসকদের শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে এক রক্তক্ষয়ী মুক্তি সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। আজ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব বর্ষের বিজয় দিবসে দৃপ্ত কণ্ঠে ঘোষণা করছি, শহিদদের রক্ত বৃথা যেতে দেব না।’’

শুক্রবার সকালে ঢাকার রমনা কালীবাড়ি যাওয়ার কথা রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের। সেখানে সদ্য নির্মিত একটি অংশের উদ্বোধন করবেন ভারতের রাষ্ট্রপতি। তার পর দুপুরে ঢাকা বিমানবন্দর থেকে দিল্লির উদ্দেশে উড়ে যাবে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের ‘এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান’।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE