×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

সোশ্যাল মিডিয়া কাঁপাচ্ছে পাকিস্তানের মহিলা বাহিনীর নিজস্বী

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ ২৮ অক্টোবর ২০১৮ ০৩:০৪
সেই নিজস্বী। ছবি: টুইটার।

সেই নিজস্বী। ছবি: টুইটার।

দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। বেরিয়ে আসছে কালো ধোঁয়া। আগুন থেকে খানিকটা দূরে সেলফি-স্টিক হাতে দাঁড়িয়ে নিজস্বী তুলছেন এক দল মহিলা। প্রত্যেকের মাথায় হিজাব, গায়ে খাঁকি উর্দি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন হু হু করে ছড়াচ্ছে এই ছবি। কোনও ছবিতে আবার দেখা যাচ্ছে, রাইফেল হাতে আগুনের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন এক মহিলা উর্দিধারী। কোনওটায় ঝাঁ চকচকে রোদচশমা পরে একাই নিজস্বী তুলছেন এক মহিলা। পাকিস্তান সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট টুইটারে শেয়ার করা এমন বেশ কয়েকটি ছবি নিয়েই এখন মাতামাতি নেট দুনিয়ায়।

ছবিগুলিতে যাঁরা নিজস্বী তুলছেন, তাঁরা আসলে পাক ‘অ্যান্টি নারকোটিকস ফোর্স’ (এএনএফ)-এর মহিলা অফিসার। সম্প্রতি পেশোয়ারে বাজেয়াপ্ত হওয়া প্রায় ৪০০ কেজি অবৈধ মাদক পুড়িয়ে ফেলে এএনএফ। সেই মাদক পোড়ানোর সময়ই ছবিগুলি তুলেছেন এএনএফ বাহিনীর মহিলা সদস্যেরা। পরে সেগুলিই ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অজস্র প্রশংসাসূচক মন্তব্যে জমেছে। কেউ লিখেছেন, ‘‘এর থেকেই বোঝা যায় পাক মহিলারা এখন আর পর্দার আড়ালে নেই। তাঁদের কতটা ক্ষমতায়ন হয়েছে।’’ একটি বিবৃতিতে এএনএফের ডিজি মুসারত নওয়াজ মালিক জানিয়েছেন, পাক যুব সমাজকে নেশামুক্ত করার উদ্দেশ্যেই কয়েক সপ্তাহ ধরে মাদক বিরোধী অভিযান চালায় তাঁর বাহিনী। উদ্ধার হওয়া মাদক পরে প্রথামতো পুড়িয়ে ফেলা হয়।

Advertisement


Tags:

Advertisement