×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

আমেরিকার ভোটের সময় বাড়তে পারে অস্থিরতা, আশঙ্কা জাকারবার্গের

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন৩০ অক্টোবর ২০২০ ১৪:২৯
আমেরিকার ভোটের সময় অস্থিরতা তৈরির আশঙ্কা প্রকাশ করলেন ফেসবুক কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ। ছবি: রয়টার্স

আমেরিকার ভোটের সময় অস্থিরতা তৈরির আশঙ্কা প্রকাশ করলেন ফেসবুক কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ। ছবি: রয়টার্স

ভুয়ো খবর, গুজব, বিদ্বেষ রুখতে ভারত সরকার বারবার বলেছে ফেসবুককে। তার উপর আবার সম্প্রতি বিজেপির ‘ঘৃণা মন্তব্য’ গুরুত্ব না দেওয়ার অভিযোগে সরগরম রাজনীতি। অনেকেই মনে করেন, ওই বিতর্কের জেরেই ফেসবুকের চাকরি ছেড়েছেন সংস্থার ভারতীয় ‘পলিসি হেড’ আঁখি দাস। তার মধ্যেই আমেরিকার ভোটের সময় ভুয়ো তথ্য ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করলেন ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ। সম্ভাবনা রয়েছে অস্থিরতারও। তাই এই ভোট সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলির কাছে হতে চলেছে বড় পরীক্ষা, বলছেন ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ কর্ণধার জাকারবার্গ।

আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলগণনা ৩ নভেম্বর। তার এক সপ্তাহ আগে থেকে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি নাগরিকদের ভোট দানে নিরুৎসাহ করে, এমন প্রচার বা পোস্টের বিরুদ্ধেও তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছিলেন জাকারবার্গ। কিন্তু তার পরেও এমন একটি বিজ্ঞাপন সামনে চলে আসে, যা ভোটগণনার পরে আসার কথা। তা নিয়েও কম বিতর্ক হয়নি। তার মধ্যে জাকারবার্গের এই মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ।

২০১৬ সালে আগের বার আমেরিকার নির্বাচনের সময় অভিযোগ ছিল, সোশ্যাল মিডিয়ায় আমেরিকার ভোটকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছে রাশিয়া, চিনের মতো শক্তি। এ বারও তেমন কিছু সামনে চলে আসতে পারে— এই আশঙ্কা থেকেই কি আগেভাগে আশঙ্কা প্রকাশ করে রাখলেন ফেসবুক কর্তা? এমন প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

Advertisement

জাকারবার্গ বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘আমাদের দেশে (আমেরিকায়) এত বিভাজন এবং ভোটের ফল ঘোষণা হতে যেখানে কয়েক দিন থেকে এক সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে, সেই সময়ের মধ্যে সামাজিক অস্থিরতা তৈরি হতে পারে। এর অর্থ আমাদের মতো সংস্থাকে এমন কাজ করতে হবে, যা আগে কখনও হয়নি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আগামী সপ্তাহ আমাদের কাছে বড় পরীক্ষা হতে চলেছে। আমরা যা কাজ করেছি, তা নিয়ে আমি গর্বিত। তবে ৩ নভেম্বরের পরেও আমাদের কাজ থামবে না।’ নতুন নতুন বিপদের মোকাবিলা করতে সংস্থা কাজ করে যাবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন জাকারবার্গ।

আরও পড়ুন: শাহ-ধনখড় কথায় বাড়ল রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসনের জল্পনা

আরও পড়ুন: মুকুলকে একুশের ভোটে ‘বড়’ কাজে ব্যবহার করতে চায় বিজেপি

নির্ধারিত দিনের আগেই বিজ্ঞাপন আগেই সামনে চলে আসা নিয়ে ফেসবুকের প্রোডাক্ট ম্যানেজার রব লেদার্ন বলেন, ‘‘কিছু বিজ্ঞাপন আচমকা থেমে গিয়েছে। সে বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি। কিছু বিজ্ঞাপনদাতাও নিজেদের নীতি পরিবর্তন করেছে।’’ অন্য দিকে নির্বাচনে প্রভাব খাটানো নিয়ে জাকারবার্গের বক্তব্য, এখন অনেক এগিয়ে গিয়েছে সংস্থা। রাশিয়া, চিন, ইরান-সহ বিভিন্ন দেশের প্রায় ১০০টি সংগঠিত নেটওয়ার্ক চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ভুয়ো অ্যাকাউন্ট ধরতেও নতুন নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে, যা আরও উন্নত।

 

 

Advertisement