×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বিয়ের আসরে চলতে শুরু করল কনের ‘বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের’ ভিডিয়ো

সংবাদ সংস্থা
বেজিং ০২ জানুয়ারি ২০২০ ১৯:১২
বিয়ের আসরে অঘটন

বিয়ের আসরে অঘটন

বিয়ের রাতেই কনের ‘কীর্তি’ ফাঁস করে দিলেন বর। সবার সামনে চালিয়ে দিলেন ‘পর পুরুষ’-এর সঙ্গে গোপন প্রেমের ভিডিয়ো। চিনের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ঘটনা।

চিনের সোশ্যাল মিডিয়ায় উইবো-তে সম্প্রতি হ্যাশট্যাগ ‘ব্রাইড এক্সপোজ অ্যাট ওয়েডিং’ ট্রেন্ডিং হয়ে ওঠে। আসলে একটি একটি ভিডিয়ো ঘিরে তৈরি হওয়া হ্যাশট্যাগ। ভিডিয়োটিও বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরতে থাকে।

ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, একটি বিয়ের আসর সবাই জমায়েত হয়েছেন। সকলের মাঝখান দিয়ে হেঁটে স্টেজের উপর উঠছেন বর, কনে। পিছনে বাজছে মিউজিক। একটুর পরেই স্টেজের ঠিক পিছনের দেওয়ালে একটি ভিডিয়ো চলতে শুরু করে।

Advertisement

আরও পড়ুন: এই ‘সাধারণ’ বিড়াল আর মানুষের ভাইরাল ভিডিয়ো দেখলেন ১১ লাখ ইউজার

ভিডিয়ো শুরুর আগে ঘোষণা হয়, বর কনের প্রেমের কাহিনী তুলে ধরা হচ্ছে। কিন্তু যা ফুটে উঠল পর্দায়, তাতে বিয়ে ভাঙার জোগাড়। কনের সঙ্গে বরের ভগ্নিপতির যৌনতার একটি ভিডিয়ো চলতে আরম্ভ করে। আর সঙ্গে সঙ্গে স্টেজে দাঁড়িয়ে ঝগড়া শুরু হয়ে যায় বর-কনের। বর কনেকে ধাক্কা দেন আর পাল্টা কনে তাঁর দিকে হাতের ফুলের তোড়া ছুঁড়ে দেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে বর কনেকে বলেন, “তুমি কি ভেবেছিলে আমি এ সম্পর্কে আগে জানতাম না।”

আরও পড়ুন: নতুন বছরে পুরীর সৈকতে ফুটে উঠলেন জগন্নাথ দেব

অনেকেই বর, কনে-কে ক্যামেরাবন্দি করতে মোবাইল অন করেন। সেই ক্যামেরাতেই ধরা পড়ে গোটা ঘটনা। পরে যা ভাইরাল হয়ে যায় চিনের সোশ্যাল মিডিয়াটিতে।

উইবোতে ওই ব্যক্তি পরে বেশ কয়েকটি পোস্ট করেন। সেখানে তিনি দাবি করেন, এই ভিডিয়ো তিনি নজরদারি ক্যামেরার রেকর্ডিং থেকে পেয়েছেন। তিনি ভাবতেও পারেননি এমন কিছু সামনে চলে আসবে। বিয়েবাড়ির আয়োজন যেখানে হয়েছিল, সেই বিল্ডিংয়ের সিসি ক্যামেরার ফুটেজগুলি দেখছিলেন তিনি। হঠাত্ই দেখতে পান তাঁর হবু স্ত্রী ও (বরের) ভগ্নিপতির সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত।

সংবাদমাধ্যম ‘এশিয়া ওয়ানা’ জানিয়েছে, বিয়ের অনেক আগে থেকেই ওই যুবক, যুবতীর পরিচয় ছিল। তখনই ওই যুবতীর উপর তাঁর হবু স্বামী অত্যাচার করতেন বলে অভিযোগ। সেই সূত্রেই ওই মহিলা, হবু বরের বোনের স্বামীর সঙ্গে মাঝে মাঝে সময় কাটাতেন। সেটাই নাকি ধীরে ধীরে ‘অবৈধ সম্পর্কে’ পরিণত হয়।

এই ভিডিয়ো সামনে আসার পর, কনের বাড়ির লোক ভিডিয়োটি সোশ্যাল মিডিয়ায় থেকে সরিয়ে নিতে বলেন ওই ব্যক্তিকে। না হলে তাঁরা বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

এই ঘটনার পর তাঁদের সম্পর্কের বর্তমান অবস্থা কী তা জানা যায়নি।

দেখুন সেই ভিডিয়ো:

Advertisement