সরাসরি ত্রাণ প্রকল্পের কথা মুখে না-এনেও ‘সুস্থ অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার লক্ষ্যে’ পরিকাঠামোয় বিপুল লগ্নির কথা ঘোষণা করল মোদী সরকার। যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকা ঢালার কথা বলা হয়েছে সড়ক নির্মাণে। পাঁচ বছরে ৮৩ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি রাস্তা তৈরিতে উপুড় করা হবে প্রায় ৭ লক্ষ কোটি টাকা।

প্রত্যাশিত ভাবেই মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের তরফে এই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছে শিল্পমহল। কিন্তু বিরোধীদের দাবি, এই ঘোষণার অধিকাংশই আসলে বিভিন্ন পুরনো ঘোষণার কোলাজ।

সড়ক নির্মাণের যে-পরিকল্পনার কথা সব থেকে জোর দিয়ে ঘোষণা করা হয়েছে, তা হল, ভারতমালা প্রকল্প। ১৯৯৮ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী ‘জাতীয় সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প’ চালু করেন। তার আর মাত্র ১০ হাজার কিলোমিটারের কাজ বাকি। তার পরে ওই ধরনের রাস্তা তৈরি নতুন করে শুরু হবে ভারতমালা প্রকল্পের আওতায়। এ দিন বস্তুত কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা সেই ভারতমালা প্রকল্পের প্রথম দফার উপরে সিলমোহর বসাল।

এই কাজ সময় বেঁধে শেষ করতে যে তারা বদ্ধপরিকর, তা বোঝাতে গোড়াতেই বিভিন্ন দফতরের দায়িত্ব স্পষ্ট করে দিয়েছে কেন্দ্র। ২০২২ সালের মধ্যে কাজ শেষ করার দায়িত্ব বর্তাবে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ, জাতীয় সড়ক পরিকাঠামো উন্নয়ন নিগম, সড়ক পরিবহণ মন্ত্রক ও রাজ্যের পূর্ত দফতরের উপরে।

পরিকাঠামো গড়তে সড়ক তৈরি ছাড়াও জোর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে আবাসন, রেল, বিদ্যুৎ ও ডিজিটাল পরিকাঠামো নির্মাণে। যেমন, সকলের মাথায় ছাদ জোগাতে এবং সকলের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছতে ইতিমধ্যেই যথাক্রমে ২.২ লক্ষ কোটি ও ১.৬ লক্ষ কোটি ঢালার কথা বলেছিল কেন্দ্র। এ দিন তা ফের বলা হয়েছে। বিপুল লগ্নির কথাও ফের বলা হয়েছে রেল, বিমান পরিবহণে।

 

সড়কে লগ্নি পরিকল্পনা

• পাঁচ বছরে ৮৩,৬৭৭ কিমি রাস্তা তৈরির পরিকল্পনা

• সম্ভাব্য ব্যয় ৬.৯২ লক্ষ কোটি

• তৈরি হবে ১৪.২ কোটি শ্রমদিবস

• প্রধান অংশ ভারতমালা প্রকল্প। এর আওতায় তৈরি হবে ৩৪,৮০০ কিমি জাতীয় সড়ক। সম্ভাব্য খরচ ৫.৩৫ লক্ষ কোটি

 

খরচ-জোগান

• বাজার থেকে ধার ২.০৯ লক্ষ কোটি টাকা

• পিপিপি মারফত বেসরকারি লগ্নি ১.০৬ লক্ষ কোটি

• কেন্দ্রীয় সড়ক তহবিল থেকে ২.১৯ লক্ষ কোটি টাকা

 

ভারতমালায় কী কী?

• অর্থনৈতিক করিডর: ৯,০০০ কিমি

• আন্তঃকরিডর ও ফিডার পথ: ৬,০০০ কিমি

• তৈরি সড়কে যানজট কাটাতে: ৫,০০০ কিমি

• সীমান্ত সড়ক: ২,০০০ কিমি

• উপকূল ও বন্দর সংযোগকারী রাস্তা: ২,০০০ কিমি

• নতুন এক্সপ্রেসওয়ে: ৮০০ কিমি

• জাতীয় সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের বাকি কাজ: ১০,০০০ কিমি