• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তড়িঘড়ি ত্রাণে আপত্তি পানাগড়িয়ার

Arvind Panagariya
অর্থনীতিবিদ অরবিন্দ পানাগড়িয়া।—ছবি সংগৃহীত।

অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেছিলেন, শীঘ্রই নতুন ত্রাণ প্রকল্প ঘোষণা করবেন তাঁরা। তবে বিপুল অঙ্কের ত্রাণের জন্য বিভিন্ন মহল থেকে যে চাপ আসছে, কেন্দ্রকে তা ঠেকিয়ে রাখারই পরামর্শ দিলেন অর্থনীতিবিদ অরবিন্দ পানাগড়িয়া। বরং নীতি আয়োগের প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যানের মতে, তড়িঘড়ি এমন প্রকল্প ঘোষণার বদলে সতর্ক ভাবে, ধীরে ধীরে, ভেবেচিন্তে করোনাজনিত সঙ্কট কাটানোর পথে হাঁটুক তারা। শুধু সকলের জন্য খাদ্য, আশ্রয় ও জীবনযাপনের ন্যূনতম প্রয়োজন মেটানোর চেষ্টা করুক। না-হলে লাভের চেয়ে ক্ষতি হবে বেশি।

কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটির অর্থনীতির অধ্যাপক পানাগড়িয়ার দাবি, ওই বিপুল ত্রাণ আনা হলে স্বাভাবিক অবস্থাতেও যে সব সংস্থার টিকে থাকার কথা নয়, তারা দিব্যি লাভের গুড় খাবে। যোগ্যতা না-থাকা সত্ত্বেও ধার জুটবে তাদের কপালে। কিছু শ্রেণির জীবনযাত্রার মান করোনা হানার আগে যেমন ছিল, তাকেও ছাপিয়ে যাবে। তাঁর দাবি, অনেকেই নোট ছাপিয়ে অবস্থা সামলানোর কথা বলছেন ঠিকই। কিন্তু তাতে হিতে বিপরীত হতে পারে। তাঁর কথায়, ‘‘বাজারে তেমন জিনিস না-থাকায় এখনই হয়তো এতে মূল্যবৃদ্ধির হার মাথা তুলবে না। কিন্তু পরিস্থিতি শোধরালে সেই ভবিতব্য এড়ানো মুশকিল। বহু মানুষের হাত বাড়তি অনেক টাকা আসবে। চাহিদা মাত্রা ছাড়াবে।’’ তাঁর মতে, নোট ছাপিয়ে বা ধার করে বিপুল ত্রাণ দিতে গেলে কেন্দ্রের যা খরচ হবে, তার জন্য ভবিষ্যতে চাপ বাড়বে করদাতাদেরই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন