কেন্দ্রের হাতে থাকা রেলের কোচ ও ইঞ্জিন তৈরির সাতটি প্রধান কারখানাকে এক ছাতার তলায় আনতে চলেছে রেল। ওই সংস্থাগুলি ছাড়াও বিভিন্ন ডিভিশনে ছড়িয়ে থাকা রেলের প্রধান ওয়ার্কশপগুলিকেও নিকটবর্তী বিভিন্ন কারখানার অধীনে নিয়ে আসার পরিকল্পনা করা হয়েছে। রেল সূত্রের খবর, সবকটি সংস্থাকে এক ছাতায় আনার পরে নতুন সংস্থার নাম হবে ইন্ডিয়ান রেলওয়ে রোলিং স্টক কোম্পানি। রেলবোর্ডের এক কর্তার মতে, দেশে একচেটিয়া বরাতের উপরে নির্ভরশীলতা কাটাতে হবে রেলকে। প্রত্যেকটি কারখানাই যাতে উৎকর্ষ কাজে লাগিয়ে বিশ্ব বাজার দখলের দিকে এগোতে পারে, তা নিশ্চিত করতেই এই ব্যবস্থা। 

দ্বিতীয় বারের জন্য নির্বাচিত হয়ে কাজ শুরুর প্রথম ১০০ দিনের মধ্যেই এর রূপরেখা চূড়ান্ত করে ফেলতে চায় মোদী সরকার। সে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকটি সংস্থার শীর্ষে জেনারেল ম্যানেজারের বদলে এক জন করে সিইও থাকবেন। পরিচালনা সংক্রান্ত বিষয়ে রেলবোর্ডের কাছে দায়বদ্ধ থাকবেন তাঁরা। সূত্রের খবর, এত দিন জেনারেল ম্যানজারেরা রেলবোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে দায়বদ্ধ থাকতেন। সংস্থার লাভক্ষতির দায় চাপত রেলের উপরে। নতুন ব্যবস্থায় প্রতি সংস্থাকে সেই দায় নিজেদেরই বইতে হবে।

নতুন ব্যবস্থায় 

• চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ ওয়ার্কস। 
• ডিজেল লোকোমোটিভ ওয়ার্কস (বারাণসী)। 
• ডিজেল লোকো মডার্নাইজেশন ওয়ার্কস (পাটিয়ালা)। 
• ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি (চেন্নাই)। 
• রেল কোচ ফ্যাক্টরি (কাপুরথালা)। 
• রেল হুইল ফ্যাক্টরি (বেঙ্গালুরু)। 
• মডার্ন কোচ ফ্যাক্টরি (রায়বরেলী)। 

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।