আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সংশোধিত মোটর ভেহিক্‌ল আইন কার্যকর হয়েছে। সেখানে রাখা হয়েছে আইন লঙ্ঘন করলে মোটা জরিমানার ব্যবস্থা। যা নিয়ে আপত্তির সুর চড়তে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে। এই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণমন্ত্রী নিতিন গডকড়ীর অবশ্য দাবি, শুধু টাকা সংগ্রহের জন্যই আইন সংশোধন করে জরিমানা বাড়ানো হয়নি। সরকারের আসল উদ্দেশ্য সাধারণ মানুষকে সড়ক আইন সম্পর্কে সচেতন করে তোলা। পরবর্তী কালে এই কৌশল সফল হলে ধীরে ধীরে জরিমানার পরিমাণ কমবে। 

গডকড়ীর বক্তব্য, পরিবহণ যৌথ তালিকাভুক্ত। সেই কারণে আইন সংশোধনের আগে রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। মন্ত্রীর কথায়, ‘‘মানুষের মধ্যে ভুল ধারণা তৈরি হয়েছে। তাঁরা যদি আইন মেনে চলেন তা হলে তো কোনও জরিমানাই চাপবে না।’’