• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বরাত বেড়েছে বিসিপিএলের

দেশের একাধিক রাজ্য ও কেন্দ্রের বিভিন্ন মন্ত্রক, দফতর ও সংস্থা (যেমন প্রতিরক্ষা, ইএসআই ইত্যাদি) তাদের হাসপাতালে ব্যবহারের জন্য প্রতি বছরই এ রাজ্যের সংস্থা বেঙ্গল কেমিক্যালসের (বিসিপিএল) থেকে ক্লোরোকুইন বা অ্যাজ়িথ্রোমাইসিন কেনে। সংস্থা সূত্রের খবর, সেই সব রাজ্য ও কেন্দ্র এ বার ওই দু’টি ওযুধের বরাত বাড়ানোর কথা জানিয়েছে তাদের। বিসিপিএলের ওষুধ সরাসরি ওষুধের দোকানে মেলে না। বিক্রি হয় সরকারি বরাতেই। তবে সংস্থা আগে জানিয়েছিল, নিয়মের জটিলতায় এ রাজ্যে সরকারি হাসপাতালে তারা ওষুধ বিক্রি করতে পারে-না। সংস্থা সূত্রের খবর, তাদের মানিকতলার কারখানায় অন্য ওষুধের সঙ্গে ওই দু’টি ওষুধও তৈরি হয়। মার্কিন প্রেসি়ডেন্ট ভারত থেকে যে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন পাঠানোর দাবি জানিয়েছেন, লাইসেন্স না-থাকায় সেটি অবশ্য বিসিপিএল তৈরি করে না।

সংস্থা সূত্রের খবর, ২০১৯-২০ সালে বিসিপিএল ২-৩ লক্ষ ক্লোরোকুইন ট্যাবলেটের বরাত পায়। অ্যাজ়িথ্রোমাইসিন বিক্রি হয় প্রায় ৪০ হাজার বাক্স। তবে এ বারে এখনই বরাত আগের বছরের এই সময়ের তুলনায় অনেক বেশি। কিন্তু করোনার হানায় ওষুধের কাঁচামালের জোগানে সমস্যা রয়েছে। মজুত কাঁচামাল দিয়ে কাজ চলছে। পাশাপাশি বিকল্প পথেও কাঁচামালের জোগানের চেষ্টা চলছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন