• দেবপ্রিয় সেনগুপ্ত
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গ্যাসের দাম বাড়লেও ফের এ মাসে থমকাল ভর্তুকি

gas
প্রতীকী ছবি।

উজ্জ্বলা যোজনার মতো পদক্ষেপ করলে তা ফলাও করে প্রচার করে কেন্দ্র। কিন্তু রান্নার গ্যাসের ভর্তুকিতে কোপের সিদ্ধান্ত নেয় চুপিসারে— কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ অনেক দিনের। সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, জুলাইয়ে ফের একই ঘটনা ঘটেছে। গ্যাসের দাম বাড়লেও বাড়ানো হয়নি ভর্তুকি। গ্রাহকেরা জুনে যে ভর্তুকি পেয়েছিলেন, এই মাসেও তা-ই পাবেন। অর্থাৎ, গ্যাসের দাম অনুসারে ভর্তুকির অনুপাত কমেছে। এবং এ বারেও যথারীতি ভর্তুকি সংক্রান্ত ঘোষণা করা হয়নি। ধোঁয়াশা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার গ্রাহকদের ভর্তুকির অঙ্ক নিয়েও।

প্রত্যেক মাসে রান্নার গ্যাসের দাম সংশোধনের সময়ে ভর্তুকিহীন ও ভর্তুকিযুক্ত সিলিন্ডারের দাম এবং ভর্তুকির অঙ্ক আলাদা ভাবে ঘোষণা করাই ছিল বরাবরের রেওয়াজ। কিন্তু গত বছরের আগস্ট থেকে শুধুমাত্র ভর্তুকিহীন সিলিন্ডারের দাম জানাচ্ছে সংস্থাগুলি। ফলে ভর্তুকির অঙ্কের হিসেব কষা যাচ্ছে না। তার হদিস মিলছে গ্রাহকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়া ভর্তুকি থেকে। আর ঠিক সেই সময় থেকেই অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে, ভর্তুকিযুক্ত সিলিন্ডারের দাম বাড়িয়ে ধাপে ধাপে কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে ভর্তুকির অনুপাত। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, সেই অঙ্ক এখন নিজেদের মতো স্থির করে সরকার। মে মাসে যেমন গ্যাসের দাম অনেকটা কমার পর উত্তর দিনাজপুরের পাঁচটি জায়গায় গ্রাহকদের বড় অংশ কোনও ভর্তুকিই পাননি। ইন্ডেনের কয়েক জন গ্রাহক নামমাত্র ভর্তুকি পেয়েছেন।

রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি

জুলাইয়ে কলকাতায় ১৪.২ কেজির সিলিন্ডারের দাম বেড়েছে ৪.৫০ টাকা।

অথচ বাড়ছে না ভর্তুকি।

জুনের মতোই ভর্তুকি মিলবে ১৯.৫৭ টাকা।

প্রশ্নের মুখে হিসেব

গত বছরের অগস্ট থেকে প্রতি মাসে সিলিন্ডারের দাম সংশোধনের সময়ে ভর্তুকির অঙ্ক জানাচ্ছে না কেন্দ্র।

ভর্তুকিযুক্ত সিলিন্ডারের দামও আর আলাদা ভাবে ঘোষণা করা হচ্ছে না।

মে মাসে রাজ্যের পাঁচটি জায়গার নামমাত্র গ্রাহক ভর্তুকি পেয়েছিলেন।

ভর্তুকি নিয়ে কেন বারবার এই ধোঁয়াশা, প্রশ্ন গ্রাহকদের।

সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, ভর্তুকি ধাপে ধাপে তুলেই দিতে এই পদক্ষেপ।

জুনে কলকাতায় ১৪.২ কেজির সিলিন্ডারের দাম ৩১.৫০ টাকা বেড়েছিল। ভর্তুকি বাবদ গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে জমা পড়েছিল ১৯.৫৭ টাকা। সাধারণত বিভিন্ন এলাকায় সিলিন্ডারের দামের হেরফেরের জন্য ভর্তুকির অঙ্কও আলাদা হয়। এ মাসে কলকাতায় সিলিন্ডারের দাম ৪.৫০ টাকা বাড়লেও সূত্রের খবর, ভর্তুকির অঙ্ক একই থাকছে। একই ঘটনা ঘটছে রাজ্যের বাকি জায়গাতেও। গ্রাহক মহলের একাংশের বক্তব্য, দাম অল্প বৃদ্ধি হলেও ভর্তুকিও সেই হারে সামান্য বাড়া উচিত। তেল সংস্থাগুলি অবশ্য জানাচ্ছে, ভর্তুকির অঙ্কের বিষয়ে তারা কিছু জানে না। সবটাই তেল মন্ত্রকের সিদ্ধান্ত। প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার গ্রাহকদের জন্য আলাদা করে কোনও ভর্তুকির অঙ্ক এ বারেও জানানো হয়নি।

লকডাউনে এপ্রিল-জুনে উজ্জ্বলা যোজনার গ্রাহকদের নিখরচায় মাসে একটি করে সিলিন্ডার দেওয়ার পাশাপাশি, তার দাম তাঁদের অগ্রিম দেওয়ার কথা বলেছিল কেন্দ্র। কিন্তু আগের দু’মাসের টাকা দিয়ে সিলিন্ডার না-কিনলে, জুনে সেই অগ্রিম অর্থ দেওয়া বন্ধ করা হয়েছিল। সেই সময়েও তেল সংস্থা বা কেন্দ্র কিছু ঘোষণা করেনি। যদিও বুধবার ওই প্রকল্প আরও তিন মাস বাড়ানোর কথা জানিয়েছে কেন্দ্র। সংশ্লিষ্ট মহলের প্রশ্ন, অন্য সিদ্ধান্ত কেন আড়ালে নেওয়া হয়? কেনই বা সে ক্ষেত্রে এত রাখঢাক?

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন