• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার রেজ়াল্ট

PSU
প্রতীকী ছবি।

গত অর্থবর্ষে লাভ-লোকসানের নিরিখে কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির কোনটি কোথায় দাঁড়িয়ে, সেই সমীক্ষার রিপোর্ট জমা পড়ল সংসদে। ‘পাবলিক এন্টারপ্রাইজ় সার্ভে, ২০১৮-১৯’ অনুযায়ী, গত তিন বছর ধরে সব থেকে বেশি লোকসানের মুখ দেখছে বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়া এবং এমটিএনএল। বর্তমানে টেলিকম সংস্থা বিএসএনএল ও এমটিএনএল হাঁটছে পুনরুজ্জীবনের পথে। আর দ্বিতীয় দফায় এয়ার ইন্ডিয়া বেচতে উঠেপড়ে লেগেছে কেন্দ্র। গত অর্থবর্ষে ওই তিনটি সংস্থার সম্মিলিত লোকসানের অঙ্ক দাঁড়িয়েছে ৩৭০ কোটি টাকারও বেশি। সেরা তিন লাভজনক রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ওএনজিসি, আইওসি এবং এনটিপিসি। 

পরিসংখ্যান বলছে, দেশে ৩১ মার্চ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার সংখ্যা ৩৪৮টি। যার ২৪৯টি পুরোদস্তুর ব্যবসা করে। ৮৬টি তৈরি হচ্ছে। ১৩টিতে ব্যবসা গোটানোর প্রক্রিয়া চলছে। 

প্রতি বছর সংস্থাগুলির আর্থিক স্বাস্থ্য নিয়ে সমীক্ষা চালায় ভারী শিল্প ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা সংক্রান্ত মন্ত্রকের রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা দফতর। এ বারে সমীক্ষা বলছে, গত অর্থবর্ষে ৭০টি লোকসানে চলা সংস্থার ক্ষতির ৯৪.০৪ শতাংশই গুনেছে তালিকায় থাকা প্রথম ১০টি। তবে ২০১৭-১৮ সালের ২০,৩২,০০১ কোটি টাকার তুলনায় গত বার সব কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির আয় ২০.১২% বেড়ে হয়েছে ২৪,৪০,৭৪৮ কোটি। উৎপাদন শুল্ক, আমদানি শুল্ক, জিএসটি, কর্পোরেট কর, কেন্দ্রীয় ঋণে সুদ, ডিভিডেন্ড, অন্যান্য শুল্ক এবং কর বাবদ তারা সরকারের ঘরে জমাও দিয়েছে তার আগের বছরের থেকে ৪.৬৭% বেশি টাকা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন