Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কটাক্ষে বিদ্ধ ডিভিডেন্ডও

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ০২:০৮
অর্থনীতিবিদদের দাবি, শীর্ষ ব্যাঙ্ক লাভের কতখানি সিন্দুকে রাখবে আর কতটা ডিভিডেন্ড দেবে, তা নিয়ে নির্দিষ্ট নিয়ম তৈরির সময় এসেছে।

অর্থনীতিবিদদের দাবি, শীর্ষ ব্যাঙ্ক লাভের কতখানি সিন্দুকে রাখবে আর কতটা ডিভিডেন্ড দেবে, তা নিয়ে নির্দিষ্ট নিয়ম তৈরির সময় এসেছে।

অন্তর্বর্তী ডিভিডেন্ড ঘোষণার মাধ্যমে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কার্যত ভোট-প্রচারের জন্য মোদী সরকারের হাতে টাকা তুলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ তুললেন বিরোধীরা।

কেন্দ্রের প্রত্যাশা পূরণ করে শীর্ষ ব্যাঙ্কের ২৮ হাজার কোটি টাকাই অন্তর্বর্তী ডিভিডেন্ড দেওয়ার বিষয়ে কংগ্রেসের অভিযোগ, ওই টাকা আসলে বিজেপির প্রচারের জন্য। ইঙ্গিত, অন্তর্বর্তী বাজেটে বিভিন্ন জনমোহিনী ঘোষণার পরেও এই টাকার দৌলতে ঘাটতিকে লক্ষ্যের মধ্যে বেঁধে রাখার কৃতিত্ব নেওয়ার সুবিধা পাবে কেন্দ্র। বামেদের অভিযোগ, সমস্ত স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে নাক গলাচ্ছে মোদী সরকার।

অর্থনীতিবিদদের দাবি, শীর্ষ ব্যাঙ্ক লাভের কতখানি সিন্দুকে রাখবে আর কতটা ডিভিডেন্ড দেবে, তা নিয়ে নির্দিষ্ট নিয়ম তৈরির সময় এসেছে। সরকার যেমন রাজকোষ ঘাটতি সামাল দিতে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের উপরে আরও বেশি ডিভিডেন্ডের জন্য চাপ তৈরি করছে, তেমনই শীর্ষ ব্যাঙ্কের জরুরি প্রয়োজনে কেন্দ্র তাকে অর্থ জোগাবে, এমন ব্যবস্থাও থাকা উচিত। তাঁদের ব্যাখ্যা, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক দেউলিয়া হলে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ভাঁড়ারের অর্থ কাজে লাগবে। তা কাজে লাগে টালমাটাল অর্থনীতি সামাল দিতেও।

Advertisement

সিপিএমের সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, ‘‘মোদী সরকার কোনও প্রতিষ্ঠানকে অক্ষত রাখেনি। জুমলা সরকারের প্রচারের খরচ জোগাতে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের টাকা অপচয় করা হচ্ছে।’’ কংগ্রেস মুখপাত্র প্রিয়ঙ্কা চতুর্বেদীরও বক্তব্য, ‘‘এই ডিভিডেন্ড আসলে বিজেপির প্রচারের জন্য।’’

বিরোধীদের অভিযোগ, নোটবন্দি সামলানো শক্তিকান্ত দাস রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গভর্নর হিসেবে কেন্দ্রের চাহিদা মতো ডিভিডেন্ড দেবেন, তা অপ্রত্যাশিত নয়। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের লাভের ভাগ সরকারের প্রাপ্য। এত দিন ডিভিডেন্ড দেওয়ার পরে বাকি লভ্যাংশ দিয়ে শীর্ষ ব্যাঙ্ক ভাঁড়ার বাড়াচ্ছিল। কেন্দ্র তাতে হাত দিতে চাইছে।

আরও পড়ুন

Advertisement