• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শেয়ারহোল্ডিং নিয়ে অভিযোগ

শাখা খোলায় নিষেধাজ্ঞা বন্ধন ব্যাঙ্ককে

Bandhan BAnk

Advertisement

শেয়ারহোল্ডিং কাঠামোয় ত্রুটি থাকার অভিযোগে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (আরবিআই) বিধিনিষেধের মুখে পড়ল বন্ধন ব্যাঙ্ক। শীর্ষ ব্যাঙ্কের নির্দেশ, আপাতত ইচ্ছে মতো নতুন শাখা খুলতে পারবে না তারা। খুলতে হলে আগে আরবিআইয়ের সায় নিতে হবে। শেয়ারহোল্ডিংয়ের ত্রুটিপূর্ণ কাঠামো সংশোধন না করা পর্যন্ত বন্ধনের এমডি-সিইও চন্দ্রশেখর ঘোষের বেতন বাড়ানো যাবে না বলেও জানিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

বন্ধন ব্যাঙ্ক সূত্রের দাবি, ইতিমধ্যেই ত্রুটি সংশোধনে নেমেছেন কর্তৃপক্ষ। তবে পুরো প্রক্রিয়াটি শেষ করতে সময় লাগবে। কিন্তু এই কারণে গ্রাহক পরিষেবা ব্যহত হবে না বলে বন্ধনের দাবি। তবে এই ঘটনার প্রভাব তাদের শেয়ারের উপর পরে কি না, তা বোঝা যাবে সোমবার বাজার খোলার পরে।

আইন অনুযায়ী, কোনও ব্যাঙ্কেই প্রোমোটারের হাতে তার ৪০ শতাংশের বেশি অংশীদারি রাখা যায় না। অথচ বাজারে শেয়ার ছাড়ার পরে বন্ধন ব্যাঙ্কের প্রোমোটার সংস্থা নন অপারেটিভ ফিনান্সিয়াল হোল্ডিং কোম্পানির (এনওএফএইচসি) ঝুলিতে রয়েছে ৮২.২৮%। বাকিটা সাধারণ শেয়ারহোল্ডারদের। এই কারণেই রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ওই নির্দেশ।

বন্ধন সূত্র বলছে, ওই ৮২.২৮% অংশীদারি কোনও এক জন ব্যক্তি বা সংস্থার নয়। এনওএফএইচসি-তে রয়েছে সিডবি, জিআইসি, আইএফসি, বন্ধন মাইক্রো ফিনান্সের কর্মীদের ট্রাস্ট-সহ প্রায় গোটা দশেক শেয়ারহোল্ডার। তারা এক সময়ে বন্ধন মাইক্রো ফিনান্সের শেয়ারহোল্ডার ছিল। বন্ধন ব্যাঙ্ক তৈরির সময়ে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশ মতোই তাদের নিয়ে গড়া হয় শেয়ারহোল্ডার গোষ্ঠী। তারাই তৈরি করে প্রোমোটার সংস্থা।

বন্ধন কর্তৃপক্ষের দাবি, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশ মেনে আইন অনুযায়ী দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করছেন তাঁরা। তবে ব্যাঙ্কিং মহল সূত্রের খবর, দেশের আরও কিছু বেসরকারি ব্যাঙ্কেও এই সমস্যা রয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন