Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Ashwini Vaishnaw

ভাঙল জোট, তির কেন্দ্রকে

মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের দাবি, দেশের ‘সেমিকনডাক্টর মিশন’ এবং ‘মেক-ইন-ইন্ডিয়া’ পরিকল্পনায় প্রভাব ফেলবে না। ফক্সকন ও বেদান্ত ভারতে ওই দুই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দায়বদ্ধ।

An image of Ashwini Vaishnaw

বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১১ জুলাই ২০২৩ ০৮:৩২
Share: Save:

ইতি পড়ল গাঁটছড়ায়। যৌথ উদ্যোগে প্রায় ১.৫ লক্ষ কোটি টাকা লগ্নিতে গুজরাতে সেমিকনডাক্টর তৈরির কারখানা গড়ার জন্য গত বছর চুক্তি করেছিল বেদান্ত ও তাইওয়ানের বৈদ্যুতিন পণ্য নির্মাতা ফক্সকন। সোমবার ফক্সকন জানাল, তারা প্রকল্পটি থেকে সরছে। এক বছর ধরে চেষ্টার পরেও প্রযুক্তি সহযোগী না পাওয়াই যার কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। তার পরেই কেন্দ্রকে কটাক্ষ করেন বিরোধীরা। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ টুইটে বলেন, ‘‘প্রকল্পটি ঘোষণার সময়ে প্রচারের কথা মনে আছে? গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, এক লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। বছরের পরে বছর ধরে ‘ভাইব্র্যান্ট গুজরাত’-এর বহু চুক্তির এটাই পরিণতি! উত্তরপ্রদেশের মতো আরও অনেক শিল্প সম্মেলনেরও! ‘গুজরাত মডেল’ বা ‘নিউ ইন্ডিয়া’, এমন তৈরি করা খবরের শিরোনাম কখনও বিশ্বাস করবেন না।’’

তবে বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের দাবি, এই সিদ্ধান্ত দেশের ‘সেমিকনডাক্টর মিশন’ এবং ‘মেক-ইন-ইন্ডিয়া’ পরিকল্পনায় প্রভাব ফেলবে না। ফক্সকন ও বেদান্ত ভারতে ওই দুই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দায়বদ্ধ। দফতরের প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখরের দাবি, জোট ভাঙার ঘটনা দেশের সেমিকনডাক্টর নিয়ে উচ্চাশায় বড় ধাক্কা বলে যে চর্চা চলছে, তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দেশের অগ্রগতির বিরুদ্ধে খারাপ মনোভাব। বরং মোদী সেমিকনডাক্টরের সহায়ক পরিবেশ গড়ার নীতিতে সায় দেওয়ার পরে দ্রত গতিতে সেই কাজ চলছে। ফক্সকন ও বেদান্তের আশ্বাস, এ ক্ষেত্রে তাদের আগ্রহে খামতি থাকবে না। আলাদা পথে হলেও তারা এগোবে। এই প্রকল্প মহারাষ্ট্র থেকে গুজরাতে সরায় রাজনৈতিক টানাপড়েন চলেছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE