Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪
Deutsche Bank

রক্ত ঝরা অব্যাহত টেলি শিল্পে

রিলায়্যান্স জিয়ো বাদে বাকি সব সংস্থার আয় কমেছে। যদিও সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, জিয়োর আয়-ব্যয়ের হিসেব এখনও খুব স্পষ্ট নয়। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে দেশে ছিল ১৩টি পরিষেবা সংস্থা।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৫ মে ২০১৮ ১১:৫০
Share: Save:

সব মিলিয়ে মোবাইল গ্রাহক বেড়েছে ঠিকই। কিন্তু এখনও আর্থিক স্বাস্থ্য ভাল হওয়ার তেমন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না দেশের টেলিকম সংস্থাগুলির। শুক্রবার ট্রাই প্রকাশিত পরিসংখ্যানেই ফুটে উঠেছে শিল্পের এই মলিন ছবি। যেখানে দেখা গিয়েছে, ২০১৭ সালে ক্ষেত্রটির মোট আয় কমেছে ৮.৫৬%। দাঁড়িয়েছে ২.৫৫ লক্ষ কোটি টাকা। ২০১৬-তে যা ছিল ২.৭৯ লক্ষ কোটি।

রিলায়্যান্স জিয়ো বাদে বাকি সব সংস্থার আয় কমেছে। যদিও সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, জিয়োর আয়-ব্যয়ের হিসেব এখনও খুব স্পষ্ট নয়। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে দেশে ছিল ১৩টি পরিষেবা সংস্থা। ২০১৭ সালে ভিডিয়োকনের ঝাঁপ বন্ধ হয়। বছর শেষে পরিষেবা বন্ধ করে রিলায়্যান্স কমিউনিকেশন্স, সিস্টেমা শ্যাম, কোয়াড্রান্ট। লোকসান কমাতে অনেকে আবার সংযুক্তির কৌশলও নিচ্ছে। ফলে মনে করা হচ্ছে, এর ফলে ভবিষ্যতে তিন-চারটি পরিষেবা প্রদানকারীই বাজারে রয়ে যাবে।

সংস্থাগুলির আয় কমায় ধাক্কা খেয়েছে এই শিল্প থেকে কেন্দ্রের আয়ও। যা তারা আদায় করে লাইসেন্স ফি ও স্পেকট্রাম ব্যবহারের চার্জ বাবদ। এই দুই খাতেই সরকারের সংগ্রহ কমে গিয়েছে যথাক্রমে ১৮.৭৮% ও ৩২.৮১%।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Telecom industry Telecom Deutsche Bank
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE