×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

আইএমএফের আশঙ্কার বার্তা

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ২১ নভেম্বর ২০২০ ০৫:৫৮
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

গত জুলাই-সেপ্টেম্বরে আমেরিকা-সহ কিছু দেশের জিডিপি প্রত্যাশার চেয়ে বেশি বেড়েছে ঠিকই। কিন্তু ফের বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণ বিশ্ব অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর প্রক্রিয়াকে বানচাল করতে পারে। জি-২০ গোষ্ঠীর দেশগুলির ভিডিয়ো বৈঠকে এই সতর্কবার্তা এল আন্তর্জাতিক অর্থভান্ডারের (আইএমএফ) তরফে। আর শুক্রবার সেখানেই ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জোর দিলেন করোনা থেকে মুক্তি পেতে এই দেশগুলির আরও একনিষ্ঠ চেষ্টার উপরে। বললেন, সেই পথে হাঁটতে টিকার যথেষ্ট জোগান জরুরি। তার দামও সাধ্যের মধ্যে থাকতে হবে। একমাত্র তবেই ঘুরে দাঁড়ানো যাবে।

আইএমএফ কর্ণধার ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেছেন, বিশ্ব অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর গতি শ্লথ হয়েছে ফের আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায়। দ্রুত প্রতিষেধক আসা নিয়ে আশা প্রকাশ করলেও, সব দেশকে সতর্ক করে তাঁর পরামর্শ, সরকারি আর্থিক সাহায্য যেন তাড়াহুড়ো করে ফেরানো না-হয়। বরং আরও কাজের বন্দোবস্ত করতে পরিকাঠামোয় খরচ বাড়ানো দরকার।

সম্প্রতি আইএমএফ পূর্বাভাসে বলেছে, এ বছর বিশ্ব অর্থনীতি সঙ্কুচিত হতে পারে ৪.৪%। ক্রিস্টালিনা বলেন, অতিমারি লক্ষ লক্ষ জীবন ও চাকরি খেয়েছে। তার থাবা থেকে অর্থনীতির এগোবার রাস্তাটা কঠিনই থাকবে। পিছোনোর ঝুঁকিও রয়েছে। কারণ অনেক সমস্যা রয়ে গিয়েছে। যার একটি করোনার নতুন ঢেউ রুখতে আরও কড়া ভাবে সব বন্ধ করা। তাঁরা কথায়, ‘‘এর মানে বৃদ্ধি আরও তলিয়ে যাবে। ধার বাড়বে। দীর্ঘ মেয়াদে অর্থনীতির ক্ষত হবে দগদগে।’’ সব দেশের হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

Advertisement

Advertisement