Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
investments

ফান্ডে লগ্নি কমলেও থাকছে আশা

ফান্ড শিল্পের সংগঠন অ্যাম্ফির তথ্য অনুযায়ী, গত মাসে একুইটি ফান্ডগুলিতে নিট ১৫,৫৩৬ কোটি টাকা ঢুকেছে। যা অক্টোবরের চেয়ে ২২% কম। ওই মাসে তা ১৯,৯৫৭ কোটি ছিল।

An image of Investment

—প্রতীকী চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ ০৯:৩৭
Share: Save:

জাতীয় অর্থনীতির বিভিন্ন সূচকের ইতিবাচক অগ্রগতি এবং বিদেশি লগ্নিকারী সংস্থাগুলির পুঁজির অভিমুখ ফের ভারতমুখী হওয়ায় শেয়ার বাজারের সূচক নিয়মিত চড়ছে। তবে এরই মধ্যে নভেম্বরে শেয়ার ভিত্তিক মিউচুয়াল ফান্ডগুলিতে নিট পুঁজি লগ্নি কমল অক্টোবরের তুলনায়। সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানের (এসআইপি) মাধ্যমে লগ্নি অবশ্য ঊর্ধ্বমুখী।

ফান্ড শিল্পের সংগঠন অ্যাম্ফির তথ্য অনুযায়ী, গত মাসে একুইটি ফান্ডগুলিতে নিট ১৫,৫৩৬ কোটি টাকা ঢুকেছে। যা অক্টোবরের চেয়ে ২২% কম। ওই মাসে তা ১৯,৯৫৭ কোটি ছিল। যদিও নিট লগ্নি কমার মধ্যে কোনও নেতিবাচক লক্ষণ খুঁজতে চেষ্টা করছেন না বিশেষজ্ঞেরা। কোটাক মিউচুয়াল ফান্ডের বিপণন ও ডিজিটাল ব্যবসার প্রধান মণীশ মেহতা বলেন, ‘‘গত মাসে দিওয়ালি ছিল। ছিল ব্যাঙ্কের ছুটিও। সেটাও একুইটি ফান্ডে লগ্নির কমার কারণ হতে পারে।’’ তবে এই শ্রেণির ফান্ডে টানা ৩৩ মাস নিট পুঁজি বিনিয়োগ হল বলেও মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি।

একুইটি ফান্ডে লগ্নি কমলেও গত মাসে এসআইপির মাধ্যমে বাজারে নিট ১৭,০৭৩ কোটি টাকা এসেছে। তৈরি হয়েছে নতুন নজির। আর সূচকের উত্থানের ফলে এসআইপি-র মোট সম্পদও নভেম্বরের শেষে পৌঁছেছে ৪৯.০৪ লক্ষ কোটি টাকায়। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, নতুন লগ্নিকারীদের শেয়ার সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ছে। তাঁরা এসআইপির মাধ্যমে এই ক্ষেত্রে পা রাখছেন।

অ্যাম্ফির তথ্য অনুযায়ী, বিভিন্ন শ্রেণির একুইটি ফান্ডের মধ্যে সবচেয়ে বেশি চাহিদা মাঝারি ও ছোট মাপের শেয়ার নির্ভর ফান্ডগুলির। তবে গত মাসে ঋণপত্র নির্ভর ফান্ডগুলি থেকে পুঁজি প্রত্যাহার (৪৭০৭ কোটি টাকা) করেছেন লগ্নিকারীরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

investments Fund
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE