অ্যান্ড্রয়েড ফোনের জন্য বায়োমেট্রিক অথেন্টিকেশন চালু করল হোয়াসটঅ্যাপ। সঙ্গে জানাল, এই ফিচারটি চালু করলে নেওয়া যাবে না স্ক্রিনশট। অর্থাৎ যাঁর আঙুলের ছাপ দিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ খুলবে, সে তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট থেকে কোনও স্ক্রিনশট নিতে পারবেন না।

এই বায়োমেট্রিক অথেন্টিকেশন পদ্ধতি চালু হওয়ার ফলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি। হোয়াটসঅ্যাপের আপডেটেড বিটা ভার্সনে এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট সিকিউরিটি পরিষেবা দিতে শুরু করেছে হোয়াটঅ্যাপ।

এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট সিকিউরিটি চালু হওয়ার ফলে এই মাধ্যমের বার্তার নিরাপত্তা আরও বাড়বে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট ফিচারটি যুক্ত হওয়ার পর হোয়াটসঅ্যাপের স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে না বলে ওই কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে।

সাধারণ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা এখনই এই বায়োমেট্রিক অথিন্টিকেশনের সুযোগ পাবেন না। কেবল মাত্র হোয়াটসঅ্যাপ বিটার কয়েকটি উচ্চ ভার্সানেই এই সুবিধা দেওয়া হয়েছে। সাধারণের হোয়াটসঅ্যাপে কবে থেকে এই সুবিধা পাওয়া যাবে তা এখনও জানানো হয়নি।

এর আগে আইফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য ফেস আইডি ও টাচ আইডি রেকগনিশন শুরু করেছে। যদিও আইফোনে এই সুবিধা ব্যবহারকারীরা অনায়াসেই স্ক্রিনশট নিতে পারেন। শুধুমাত্র অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্যই এই সুবিধা কেড়ে নিতে চলেছে জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি। তবে কেন নেওয়া যাবে না স্ক্রিনশট, সেই কারণ হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়নি। 

আরও পড়ুন: জেট বাঁচান, আর্তি এয়ারওয়েজের কর্মীদের