• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাড়ির ছাদে আনাজ চাষ করতে উৎসাহ

Tree
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

গোলাপ, টগর বা ডালিয়া নয়। বাড়ির ছাদ ভরবে বেগুন, ফুলকপি, টমেটোর মতো টাটকা আনাজে। আর তা রান্নাঘর ঘুরে সোজা চলে আসবে গৃহকর্তার পাতে। শহুরে বহুতলের ছাদে এ ভাবে আনাজের গাছ লাগাতে নিউ টাউনের বাসিন্দাদের উৎসাহ দিচ্ছে হিডকো। সংস্থার চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন বলেন, ‘‘ইতিমধ্যে নিউ টাউন কলকাতা ডেভেলপমেন্ট অথরিটি-র (এনকেডিএ) ছাদে নানা ধরনের আনাজের চারা লাগানো হচ্ছে।’’

বাজারে বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে হামেশাই অভিযোগ ওঠে, আনাজকে আরও টাটকা ও সবুজ দেখাতে রাসায়নিক প্রয়োগের। কিন্তু নিজের হাতে ফলানো টমেটো-লঙ্কায় সেই সমস্যা থাকবে না। এনকেডিএ-র আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, এই ‘আর্বান ফার্মিং’-এর মাধ্যমে পরিবারের প্রতিদিনের চাহিদা মেটানো যাবে সহজেই। কিন্তু তার জন্য কী ধরনের মাটি বা সার লাগবে, কী ভাবে গাছের পরিচর্যা করতে হবে, তা-ও জানা দরকার। 

ছাদে বা কোনও ছোট জায়গায় টাটকা আনাজ ফলানোর প্রশিক্ষণ দেবে একাধিক পেশাদার সংস্থা। ওই সমস্ত সংস্থার ঠিকানা এবং প্রশিক্ষণের জন্য খরচের উল্লেখ করা থাকবে এনকেডিএ-এর ওয়েবসাইটে। তবে দেবাশিসবাবু জানিয়েছেন, নির্বাচনী বিধিনিষেধের কারণে এই প্রক্রিয়া এখন স্থগিত আছে। ভোটের পরে ওই সমস্ত সংস্থার নামের তালিকা প্রকাশিত হবে।

আরও পড়ুন: দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

ছাদে আনাজ ফলাতে উৎসাহী নিউ টাউনের এক বাসিন্দা অভিজিৎ ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘বাড়ির টবে লঙ্কা কাছ লাগিয়েছি। আরও কিছু আনাজের গাছ লাগানোর ইচ্ছা আছে। কিন্তু কী ভাবে টবে এই চাষ করব, সে নিয়ে বিশেষ ধারণা নেই। পেশাদারেরা যদি প্রশিক্ষণ দেন, তাহলে খুব ভাল হয়।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন