• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হ্যাম রেডিয়োর সাহায্যে বাড়ির হদিশ

ham radio
ছবি: সংগৃহীত।

এক এক করে সব রোগীকেই বাড়ি পাঠানো হল। কাউকে পাঠানো হল অন্য হাসপাতালে। কিন্তু ফলতা ব্লক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মুশকিলে পড়েছিলেন এক রোগীকে নিয়ে। আপাতত সুস্থও তিনি। কিন্তু বাড়ি কোথাও তা বলতে পারেন না। যত বারই জানতে চাওয়া হয়, উত্তর দেন, ‘বাড়ি বনে’।  এ দিকে হাসপাতাল যে খালি করতেই হবে। কারণ, সরকার ফলতার হাসপাতালটিকে করোনা-চিকিৎসার জন্য নির্দিষ্ট করে দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত মুশকিল আসান করল হ্যাম রেডিয়ো ক্লাব। তারাই সুন্দরবনের ঝড়খালিতে বাড়ি খুঁজে বের করে। বুধবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাড়িতে পৌঁছে দেন বছর সত্তরের বৃদ্ধ নিখিলচন্দ্র সরকারকে।  পরিবারের লোকেরা জানান, বাড়িতে মূলত ধর্মকর্ম নিয়েই থাকতেন তিনি। এরই মধ্যে মানসিক বিকার দেখা দিয়েছিল। চিকিৎসা শুরু হয়। বছর তিনেক আগে বাড়ি ছেড়ে চলে যান নিখিল। ফলতা হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, দিন পাঁচেক আগে মন্দিরবাজার হাসপাতাল থেকে তাঁকে রেফার করা হয়েছিল। সেখানকার একটি রাস্তার ধারে অচৈতন্য অবস্থায় বৃদ্ধকে পাওয়া গিয়েছিল। বয়সজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। লকডাউনের জন্য খাবার পাননি, তা-ও হতে পারে। তবে দিন কয়েকের চিকিৎসায় প্রায় সুস্থ হয়ে ওঠেন নিখিল। ওয়েস্টবেঙ্গল রেডিয়ো ক্লাবের সম্পাদক অম্বরীশ নাগ বিশ্বাস জানান, ফলতা হাসপাতাল তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। লকডাউনের মধ্যেও ওই বৃদ্ধের ছবি ক্লাবের সদস্যদের পাঠানো হয়। তাঁরা খোঁজ চালিয়ে যান। শেষ পর্যন্ত ঝড়খালিতে পরিবারের খোঁজ মেলে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অ্যাম্বুল্যান্সে করে বৃদ্ধকে রওনা করেন।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন