• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাতে নেতার বাড়িতে বিক্ষোভ, সংঘর্ষে জখম দুই

Protest
প্রতীকী ছবি।

আমপানের ক্ষতিপূরণের দাবিতে এক তৃণমূলে নেতার বাড়ি ঘেরাওকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল হিঙ্গলগঞ্জের স্বরূপকাঠি গ্রামে। সোমবার রাতের ঘটনা। বচসা থেকে দু’পক্ষের সংঘর্ষ বেধে যায়। উভয় পক্ষের কয়েকজন জখম হন। দু’জনের আঘাত গুরুতর। স্থানীয় হাসপাতাল থেকে তাঁদের বসিরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উভয়পক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। পরিস্থিতি সামলাতে গ্রামে পুলিশি টহল চলছে।

তৃণমূলের অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে দলের নেতার বাড়িতে হামলা চালায় বিজেপি। অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি জানিয়েছে, প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের বঞ্চিত করে পাকা বাড়ির মালিকেরা ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন বলে গ্রামবাসীরা তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি বিশ্বজিৎ মাইতির বাড়িতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। সে সময়ে তৃণমূলের লোকেরা বিক্ষোভকারীদের উপরে চড়াও হয়।

সোমবার রাতে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা নিয়ে আলোচনার কথা ছিল। কিন্তু বিশ্বজিৎ না আসায় তা ভেস্তে যায়। রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ ওই তৃণমূল নেতার বাড়িতে যান এলাকার কিছু বাসিন্দা। তাঁরা সেখানে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে।

অভিযোগ, কয়েকজন বিশ্বজিতের বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর চালায়। হিঙ্গলগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাদের আটকে বিক্ষোভ শুরু হয়। ওসি-র নেতৃত্বে পুলিশের বিশাল বাহিনী গ্রামে যায়। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, পুলিশ বাহিনী আসার পরে ওই তৃণমূল নেতার অনুগামীরা তাঁদের উপরে হামলা চালায়। তাতেই গ্রামের দুই বাসিন্দা গুরুতর জখম হন। তার পরে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান এলাকার মহিলারা।

গ্রামের বাসিন্দা স্বপ্না মণ্ডল কল্পনা মণ্ডল বলেন, “ঝড়ে আমাদের ঘর ভাঙল। আর টাকা পাচ্ছে পাকা বাড়ির মালিকেরা। এর পিছনে কাটমানির খেলা আছে। বিশ্বজিৎ মাইতির কাছে একাধিকবার গিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। ক্ষতিগ্রস্তেরা ওই নেতার কাছে অভিযোগ জানাতে গিয়েছিলেন। মারধর, ভাঙচুর করতে নয়।”

তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে বিশ্বজিৎ বলেন, “মানুষকে ভুল বুঝিয়ে বিজেপি আশ্রিত কিছু লোক আমার বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়।”

বিজেপির বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি জয়ন্ত মণ্ডল বলেন, “পুলিশকে সামনে রেখে এলাকার তৃণমূল নেতা আমাদের কর্মীদের উপরে হামলা চালিয়েছে। এই ঘটনায় দু’জন বিজেপি কর্মী গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। গরিব মানুষকে ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন