ভোটের আগে যতই নিচুতলায় সমঝোতা হোক, বোর্ড গড়তে বিজেপির হাত ধরতে পারবে না সিপিএম। আবার তৃণমূলের সঙ্গে জোট করার তো প্রশ্নই আসে না।
সুস্মিত হালদার ও বিমান হাজরা
২৭ মে, ২০১৮
West Bengal Police
নিজস্ব সংবাদদাতা
পঞ্চায়েত ভোট মেটার পরে নদিয়ায় ওসি-র পদ থেকেই সরিয়ে দেওয়া হল পাঁচ অফিসারকে। এঁদের মধ্যে তিন জন দীর্ঘদিনের পোড় খাওয়া ওসি। তাঁদের বদলে অন্য কিছু অফিসারকে গুরুত্বপূর্ণ থানার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
২৭ মে, ২০১৮
Jackfruit
দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় ও সামসুদ্দিন বিশ্বাস
ভাগাড় কাণ্ডের জের এখনও মিলিয়ে যায়নি। তাই ‘কপাল পুড়েছে’ পাঁঠার। একই কারণে কদর বেড়েছে ‘গাছপাঠা’র— মত খাদ্য রসিকদের। হোটেল রেস্তোরাঁয় ঢুঁ মারতে যা খবর মিলছে, তাতে ভোজের পাতে এখন এঁচোড়েরই রমরমা।
২৭ মে, ২০১৮
TMC
সুস্মিত হালদার  ও সামসুদ্দিন বিশ্বাস
যা পরিস্থিতি, তাতে ওই তিনটি গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন করতে গেলে নির্দলকে নিজের ছাতার তলায় টানতেই হবে তৃণমূলকে। কৃষ্ণগঞ্জ গ্রাম পঞ্চায়েতের শোনঘাটা এলাকা থেকে জয়ী হয়েছেন নির্দল প্রার্থী মানস দত্ত।
২৬ মে, ২০১৮
Najrul with people
দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়  ও অনল আবেদিন
 জ্যৈষ্ঠ পড়লেই ওই টুল ঘিরে নানা স্মৃতি পাক মারতে থাকে কৃষ্ণনগর ছুতোরপাড়ার ৩০, উমাচরণ মুখার্জি লেনে গৌতম ও আরতি গনাইয়ের বাড়িতে। সে স্মৃতির সঙ্গে জড়িয়ে এক নাম— কাজী নজরুল ইসলাম।
২৬ মে, ২০১৮
পিতৃহারা: নিহত বিপ্লব সিকদারের মেয়ে দেবিকা। নিজস্ব চিত্র
নিজস্ব সংবাদদাতা
বিজেপির দাবি, ভোটের দিন ওই এলাকার বুথটি দখল করার চেষ্টা করেছিল তৃণমূল। শান্তিপুর শহর থেকে আসা বাইক-বাহিনী হামলা চালিয়েছিল। কিন্তু বিপ্লবের নেতৃত্বে  বিজেপি কর্মীরা বাধা দেন।
২৫ মে, ২০১৮
Vote
সামসুদ্দিন বিশ্বাস ও সুস্মিত হালদার 
নদিয়া জেলায় বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েতের ভবিষ্যত ঝুলে রয়েছে বামেদের সঙ্গে বিজেপি কিংবা তৃণমূলের বোঝাপড়ার সুতোয়। তারা যে দিকে সমর্থন দেবে বোর্ড ঢলে পড়বে সে দিকেই।
২৪ মে, ২০১৮
Smoke in public places
নিজস্ব প্রতিবেদন
‘জনপরিসর’ (পাবলিক প্লেস) বলতে বোঝায় যে কোনও জায়গা যেখানে জনতার যাতায়াত আছে যেমন প্রেক্ষাগৃহ, হাসপাতাল ভবন, রেলের প্রতীক্ষালয়, বিনোদন কেন্দ্র, রেস্তরাঁ, অফিস-কাছারি, আদালত ভবন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গ্রন্থাগার, জন-পরিবহণ ইত্যাদি, উন্মুক্ত স্থান তার মধ্যে পড়ে না।
২৩ মে, ২০১৮
Leaflet
সামসুদ্দিন বিশ্বাস
কোর্ট বাজারের সামনে আসতেই স্বাস্থ্যদফতর আর পুলিশের লোকজন পথ আটকালেন। হকচকিয়ে মতি বিড়িটা মাটিতে ফেলে নেভানোর আগেই জরিমানা ধার্য হল, পঞ্চাশ টাকা। কেন? প্রকাশ্যে ধূমপান।
২২ মে, ২০১৮
আরও খবর
আপনার পছন্দ