Advertisement
Back to
Lok Sabha Election 2024

তর্কাতর্কি থেকে হাতাহাতি! বরাহনগরে সিপিএম প্রার্থী তন্ময়ের সঙ্গে ঠেলাঠেলি তৃণমূল কাউন্সিলরের

শনিবার বরাহনগর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য একটি বুথে গিয়েছিলেন। সেখানেই তৃণমূল কাউন্সিলর শান্তনু মজুমদারের সঙ্গে হাতাহাতি হয় তাঁর।

তন্ময় ভট্টাচার্যের (বাঁ দিকে) সঙ্গে তৃণমূল কাউন্সিলরের ধস্তাধস্তি।

তন্ময় ভট্টাচার্যের (বাঁ দিকে) সঙ্গে তৃণমূল কাউন্সিলরের ধস্তাধস্তি। —নিজস্ব চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
বরাহনগর শেষ আপডেট: ০১ জুন ২০২৪ ১০:৪৭
Share: Save:

তর্কাতর্কি গড়াল হাতাহাতিতে। বাম প্রার্থীর সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়লেন তৃণমূল কাউন্সিলর। শনিবার বরাহনগর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য ব্রহ্মানন্দ কেশবচন্দ্র কলেজের ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে গিয়েছিলেন। সেখানেই বরাহনগরের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর শান্তনু মজুমদারের সঙ্গে হাতাহাতি হয় তাঁর। দু’জনকে নিরস্ত করতে দৌড়ে আসেন দু’দলের কর্মী-সমর্থকেরা।

তন্ময়ের অভিযোগ, তিনি বনহুগলি এলাকার ওই বুথ পরিদর্শনে গিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁকে দেখেই নাকি ‘চোর-চিটিংবাজ’ বলে চিৎকার করেন কাউন্সিলর এবং তাঁর অনুগামীরা। সিপিএম প্রার্থীর কথায়, “আমায় দেখে কাউন্সিলর বললেন, আপনি এখানে কেন? আমি পাল্টা বললাম আমি তো প্রার্থী, কিন্তু আপনি এখানে কেন? বলছে চোর-চিটিংবাজ। এখান থেকে চলে যান। বললাম, কী চিটিংবাজি করেছি? জেল তো খাটছি না। তার পরেই আমাকে ঘিরে নিগ্রহ করল।” এই বিষয়ে কাউন্সিলরের বক্তব্য অবশ্য এখনও জানা যায়নি।

স্থানীয়দের একাংশের বক্তব্য, তন্ময়কে বুথে ঢুকতে দেখেই এগিয়ে আসেন কাউন্সিলর। তন্ময়ের উদ্দেশে প্রশ্ন করেন, “এখানে এসেছেন কেন?” ভিডিয়োয় দেখা যায়, বাদানুবাদের মধ্যে তন্ময় কাউন্সিলরকে ঠেলে দেন। পাল্টা তন্ময়কে ঠেলে দেন কাউন্সিলরও। দু’পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। যদিও এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

তবে ধস্তাধস্তির বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে তন্ময় পরে বলেন, “আমি আমার এক বন্ধুর মেয়ের সঙ্গে কথা বলছিলাম। হঠাৎ করে আমার দিকে ওরা তেড়ে এল।” বিষয়টি নির্বাচন কমিশনে জানাবেন বলে জানিয়েছেন বরাহনগরের সিপিএম প্রার্থী। এই প্রসঙ্গে বরাহনগরের তৃণমূল নেতা অঞ্জন পাল বলেন, “তন্ময়বাবু সকাল থেকেই আমাদের কর্মী, বুথ এজেন্টদের প্ররোচিত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আমরা খবর পেয়েছি উনি ঘুরপথে বিজেপি প্রার্থী সজল ঘোষকে মদত দেওয়ার চেষ্টা করছেন। আমরা তাঁর সেই অভিসন্ধি ধরে ফেলায় তন্ময়বাবু এই কদর্য আচরণ করলেন। কিন্তু আমাদের কর্মীরা মাথা ঠান্ডা রেখে, সংযত আচরণ করে তাঁকে জবাব দিয়েছেন।”

প্রসঙ্গত, বরাহনগরের প্রাক্তন সাংসদ তাপস রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এ বার কলকাতা উত্তর লোকসভা কেন্দ্রে তিনিই পদ্মশিবিরের প্রার্থী। তাপস বিধায়কপদ থেকে ইস্তফা দেওয়ায় বরাহনগর কেন্দ্রে উপনির্বাচন হচ্ছে। সিপিএমের তন্ময়, বিজেপির সজলের সঙ্গে লড়াই তৃণমূল প্রার্থী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE