Advertisement
Back to
Presents
Associate Partners
Lok Sabha Election 2024

জিতলে নিশীথ বন্ধ করবেন লক্ষ্মীর ভান্ডার: অভিষেক

তিনি বলেন, “নিশীথ প্রামাণিক ভোটে জিতলে লক্ষ্মীর ভান্ডার বন্ধ করবেন। কোচবিহার জেলায় মাছ খাওয়া বন্ধ করবেন। এঁদের যোগ্য জবাব দেবেন কি দেবেন না?”

আলিপুরদুয়ার শহরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলিপুরদুয়ার শহরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

নমিতেশ ঘোষ
কোচবিহার শেষ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ০৭:৫৬
Share: Save:

বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক জয়ী হলে বন্ধ হবে লক্ষ্মীর ভান্ডার— মঙ্গলবার কোচবিহারের গোপালপুরে দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে জনসভায় এমনই দাবি করলেন তৃণমূলের সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সে সভা থেকেই নিশীথের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন অভিষেক। তিনি বলেন, “নিশীথ প্রামাণিক ভোটে জিতলে লক্ষ্মীর ভান্ডার বন্ধ করবেন। কোচবিহার জেলায় মাছ খাওয়া বন্ধ করবেন। এঁদের যোগ্য জবাব দেবেন কি দেবেন না?”

নিশীথকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, “২০১৯ সালের ভোটে জিতে অমিত শাহের ডেপুটি হওয়ার পরে, দশ মিনিটের জন্য কোচবিহারের কোনও গ্রামে পা রাখেননি। তাই ২০১৯ সালের বদলা ১৯ এপ্রিল জোড়াফুলে ভোটাধিকার প্রয়োগ করে দিতে হবে। উনিশের বদলা উনিশে এপ্রিল। এই ভোট শুধু বিজেপিকে হারানো বা তৃণমূলকে জেতানোর ভোট নয়। আপনাকে যে ভাবে শোষিত-বঞ্চিত করে রেখেছে, তার প্রতিবাদে ভোট, প্রতিশোধের ভোট। প্রতিরোধের ভোট।”

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন

এ দিন সভার শুরু থেকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন অভিষেক। ‘মোদী গ্যারান্টির’ নামে গত দশ বছরে মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী ও বিজেপি নেতারা সভা করে বলছেন, ‘আমরা দশ বছরে যা করে দেখিয়েছি তা ট্রেলার’। সিনেমা নাকি পরে দেখাবে। আমরা সাধারণত যখন সিনেমা দেখি, জানি সিনেমা সাধারণত দুই-ঘন্টা, আড়াই ঘণ্টা, তিন ঘণ্টার হয়। ট্রেলার হয় দু’মিনিটের, আড়াই মিনিটের। ট্রেলারে আপনি দেখলেন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম আকাশছোঁয়া।” তিনি আরও বলেন, “রাজবংশী যুবকদের দিনের আলোয় গুলি চালিয়ে নিশীথ প্রামাণিকের অধীন বিএসএফ হত্যা করেছে। এই ট্রেলার দেখার পরে আপনারা সিনেমা দেখতে চান? আপনাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আপনারা ভোট দিয়েছিলেন আচ্ছে দিনের স্বপ্নে বিশ্বাস করে। কী পেয়েছেন? শুধু ভাঁওতা।”

‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ নিয়ে একটি ভিডিয়ো দেখিয়ে অভিষেক বলেন, “বিজেপির এক নেত্রী কোচবিহারে সভা করে বলেছেন, বিজেপি যদি কোচবিহারে জয়ী হয় আর বাংলায় ৩৫টি আসন পায় তা হলে তিন মাসের মধ্যে লক্ষ্মীর ভান্ডার বন্ধ হয়ে যাবে। বিজেপি জিতলে আপনি আপনার অধিকার থেকে বঞ্চিত হবেন। তৃণমূল জিতলে অধিকার পাবেন।” তিনি আরও বলেন, “২০১৯ সালে নিশীথ প্রামাণিক জয়ী হলেন। সঙ্গে সঙ্গে বাংলার মানুষের টাকা বন্ধ। এই জনবিরোধী বিজেপিকে উচিত শিক্ষা দেবেন কি দেবেন না? বিজেপি নেতারা ভোট চাইতে এলে এই ভিডিয়ো দেখাবেন। বিজেপি জয়ী হওয়ার পরে একশো দিনের টাকা বন্ধ করেছে।”

এ নিয়ে কোচবিহারের বিজেপি প্রার্থী নিশীথ বলেন, “অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তো বলেন, আবাস যোজনা রাজ্য সরকার চালায়। এখন কেন এ সব বলছেন? এ ভাবে কোচবিহারের মানুষকে ভুল বোঝানো যাবে না। মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়ানো যাবে না। মানুষ জানেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিথ্যাবাদী। জোর করে লোক নিয়ে গিয়ে সভায় ভিড় করা হয়েছে। অভিষেকের মতো লোক যত কোচবিহারে আসবেন, তত আমাদের ভোট বাড়বে।”

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE