Advertisement
Back to
Presents
Md Salim Minakshi Mukherjee

মিনাক্ষীর মধ্যে কি বিরোধী নেত্রী মমতাকে দেখতে পান? আনন্দবাজার অনলাইনের সাক্ষাৎকারে সেলিম-জবাব

মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায়কে সামনে এগিয়ে দেওয়া, তাঁকে ‘মুখ’ করার নেপথ্যে মহম্মদ সেলিমের বড় ভূমিকা রয়েছে বলেই সিপিএম সূত্রে খবর। এ-ও জানা গিয়েছে, অনেকে মিনাক্ষীকে লোকসভা ভোটে দাঁড় করানোর কথা বললেও সেলিম রাজি হননি।

Graphical Representation

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ এপ্রিল ২০২৪ ২০:৫৮
Share: Save:

গত ডিসেম্বরে আনন্দবাজার অনলাইনের প্রশ্নের জবাবে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম মেনে নিয়েছিলেন, মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায় এখন দলের ‘মুখ’। কিন্তু যুবনেত্রী মিনাক্ষীর মধ্যে কি তিনি বিরোধী নেত্রী থাকাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখতে পান? আনন্দবাজার অনলাইনের সাক্ষাৎকার ভিত্তিক অনুষ্ঠান ‘দিল্লিবাড়ির লড়াই মুখোমুখি’-তে সেলিম মমতার সঙ্গে মিনাক্ষীর তুলনায় যেতেই চাইলেন না! বরং আক্রমণ করলেন তৃণমূলনেত্রীকে। তবে কিয়দংশে মমতার প্রশংসাও শোনা গেল সেলিমের গলায়।

সেলিমের কথায়, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হয়েছিলেন পুলিশের টুপি খুলে দিয়ে, তাঁদের গায়ে কালি লাগিয়ে, জনতাকে রাইটার্সের দিকে পাঠিয়ে দিয়ে নিজে স্কুটারে চেপে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে। আর মিনাক্ষী পুলিশের মার খেয়েছে, সাথীদের আগলে নিয়েছে, তার পরে গ্রেফতার বরণ করে জেল খেটেছে। দু’টো এক নয়।’’

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন

সিপিএম জমানায় মমতার আন্দোলনের কথা সর্বজনবিদিত। তৃণমূল জমানায় একাধিক ঘটনায় বিরোধী আন্দোলন সে ভাবে সংঘবদ্ধ না হওয়ায় খেদের সঙ্গে অনেক সিপিএম নেতাও ঘরোয়া আলোচনায় বলেন, এই ‘ইস্যু’ মমতা পেলে বাংলায় আগুন জ্বালিয়ে দিতেন! বাম জমানায় মার খাওয়ার কথা মমতা এখনও প্রায়ই বলেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘‘সিপিএম আমার মাথা থেকে পায়ের নখ পর্যন্ত ক্ষতবিক্ষত করেছে। আমি জীবন্ত লাশ হয়ে বেঁচে আছি।’’ তবে সেলিম সাক্ষাৎকারে তা মানতে চাননি। বরং মমতার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘মমতা বেদীভবনের ঘটনার সময়ে অন্যের রক্ত নিজের গায়ে লাগিয়েছিলেন। মিনাক্ষী তা করেননি।’’ সেলিম আরও বলেন, ‘‘আনিস খান হত্যার প্রতিবাদে হাওড়ার পাঁচলার মিছিল থেকে মিনাক্ষীকে যখন গ্রেফতার করেছিল, তার পরে ও যখন জেল থেকে বেরিয়েছিল, তখন দেখা গিয়েছিল খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছে। সিপিএম কেন, ও নিজেও সেটাকে ইস্যু করেনি।’’ বেদীভবনের প্রসঙ্গে সেলিম যা বলেছেন, সেই অভিযোগের প্রমাণও তাঁর কাছে রয়েছে বলে দাবি সেলিমের। সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের বক্তব্য, সেই সময়ের পুলিশের সাক্ষ্য নিলেই বিষয়টা বোঝা যাবে।

দলের তরফে মিনাক্ষীকে সামনে এগিয়ে দেওয়া, তাঁকে ‘মুখ’ করার নেপথ্যে সেলিমের বড় ভূমিকা রয়েছে বলেই সিপিএম সূত্রে খবর। আলিমুদ্দিন সূত্রে এ-ও জানা গিয়েছে, অনেকে মিনাক্ষীকে লোকসভা ভোটে দাঁড় করানোর কথা বললেও সেলিম তাতে রাজি হননি।

কিন্তু মমতা কি তা হলে এমনি এমনিই ৩৪ বছরের বাম সরকারকে হঠিয়ে বাংলার ক্ষমতায় চলে এলেন? সে প্রশ্নের জবাবে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক তথা এই লোকসভা ভোটে মুর্শিদাবাদের প্রার্থী সেলিম বলেন, ‘‘তা নয়। তিনি আন্দোলন করেছেন, সংগ্রাম করেছেন, সংগঠন করেছেন।’’ তবে পাশাপাশিই মমতা সম্পর্কে সেলিম বলেছেন, ‘‘তিনি আরএসএসের দুর্গা সেজেছেন, আরএসএসের থেকে টাকা নিয়েছেন, শুভেন্দুকে (অধিকারী) দিয়ে কিষেনজিকে নিয়ে এসে মাওবাদীদের দিয়ে জঙ্গলমহলে লাশ ফেলিয়েছেন। মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায়ের রাজনীতি কখনও তা করবে না।’’

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE