Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জুন ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

বিনোদন

শাহিদ, ক্যাটরিনা, টাইগারদের ডেবিউ ফিল্ম হওয়ার কথা ছিল এগুলো!

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৫ জুন ২০১৮ ১৭:৩৭
বর্তমানে এঁরা সবাই নামকরা অভিনেতা। কিন্তু জানেন কি অতীতে কারও খারাপ আচরণ তো কারও অত্যন্ত খারাপ অভিনয় স্কিল বা নেহাত নিজেদের বোকামির জন্যই ভাল ছবি হাতছাড়া হয়ে গিয়েছিল এঁদের। যার ফল, বেশিরভাগেরই হিট ফিল্ম হাতছাড়া। দেখে নেওয়া যাক বলি নায়ক-নায়িকাদের মিসড ডেবিউ ছবিগুলি।

সইফ আলি খান: কাজল এবং সইফের ডেবিউ ফিল্ম হওয়ার কথা ছিল বেখুদি। প্রথম দিন শুটিংয়েও আসেন সইফ। কিন্তু তার পর তাঁর আচরণ পরিচালকের পছন্দ হয়নি। তাই সইফকে বদলে কমল সাদানাকে ফিল্মের নায়ক করে দেন। কাজলেরও এটা ডেবিউ ফিল্ম ছিল।
Advertisement
শহিদ কপূর: ‘স্টাইল’য়ে ডেবিউ করার অফার পেয়েছিলেন শহিদ। কিন্তু তিনি অফার ফিরিয়ে দেন। শহিদের বলিউড ডেবিউ ফিল্ম ‘ইস্ক ভিস্ক’।

প্রিয়ঙ্কা চোপড়া: ২০০২-এর হিট ফিল্ম হমরাজ-এ আমিশার বদলে প্রিয়ঙ্কাকে দেখতে পেতাম আমরা। কিন্তু শেষমেশ প্রিয়ঙ্কা ওই ফিল্মে সায় দেননি। আর তাই ‘দ্য হিরো: লভ স্টোরি অফ এ স্পাই’-এর হাত ধরে প্রিয়ঙ্কার বলিউড ডেবিউ।
Advertisement
প্রীতি জিন্টা: পরিচালক শেখর কপূর একটি অডিশনে প্রীতি জিন্টাকে লক্ষ্য করেন। তিনি ‘তারা রাম পম পম’-এর জন্য প্রীতিকে সই করান। কিন্তু ফিল্মটাই মুক্তি পায়নি। তাই এই ছবি দিয়ে প্রীতির ডেবিউ করা হয়নি।

টাইগার শ্রফ: বাবা জ্যাকি শ্রফের ফিল্ম ‘হিরো’ রিমেকের (২০১০) জন্য পরিচালক টাইগারকে বেছে নিয়েছিলেন। কিন্তু টাইগার তাতে অভিনয় করতে রাজি হননি। তার দু’বছর পর ২০১২ সালে ‘হিরোপন্তি’ ছবি দিয়ে বলিউডে প্রবেশ তাঁর।

ঐশ্বর্যা রায়: সুপারহিট ফিল্ম ‘রাজা হিন্দুস্তানি’। জুটি আমির-করিশ্মা। কিন্তু জানেন কি এই ছবিতে করিশ্মার বদলে কার অভিনয় করার কথা ছিল। ঐশ্বর্যা রাইয়ের। ঐশ্বর্যা ফিল্মে অভিনয় করতে রাজি হননি। তাঁর ডেবিউ ফিল্ম ‘আ অব লউট চলে’।

করিনা কপূর: একই ভাবে সুপারহিট ফিল্মের সুযোগ হাতছাড়া করেছিলেন করিনাও। ‘হম দিল দে চুকে সনম’-এর প্রস্তাব নাকচ করে। তবে তাঁর ডেবিউ ফিল্ম ‘রিফিউজি’ও হিট করেছিল।

শ্রদ্ধা কপূর: সলমন খানের বিপরীতে ‘লাকি’ ফিল্মে অভিনয় করার কথা ছিল শ্রদ্ধার। কিন্তু তখন শ্রদ্ধা পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় সলমনের অফার ফিরিয়ে দেন। ‘তিন পাত্তি’ তাঁর ডেবিউ ফিল্ম।

সিদ্ধার্থ মলহোত্র: ২০১১-র ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’ স্টার সিদ্ধার্থের ডেবিউ করার কথা ছিল প্রিয়ঙ্কার বিপরীতে। ‘ফ্যাশন’ ছবিতে।

লারা দত্ত: প্রথম ফিল্মের অফার পান হলিউড মুভি ‘ম্যাট্রিক্স রিলোডেড’ এবং ‘ম্যাট্রিক্স রেভোলিউশন’-এ। কিন্তু অফার ফিরেয়ে দেন। ২০০৩ সালে বলিউড ফিল্ম ‘আন্দাজ’ তাই ফিল্ম ডেবিউ।

ক্যাটরিনা কইফ: জন আব্রাহামের বিপরীতে ২০০৩ সালের ফিল্ম ‘সায়া’-তে অভিনয় করার কথা ছিল ক্যাটরিনার। কিন্তু অত্যন্ত খারাপ অভিনয় স্কিলের জন্য তাঁকে বাতিল করে দেন পরিচালক। সেই বছরই ‘বুম’ ছবিতে তাঁর ডেবিউ।