সপরিবার শারদ উৎসবে মেতে উঠলেন অভিনেত্রী কাজলমুম্বইয়ে মুখোপাধ্যায় পরিবারের পুজোর নামডাক বিস্তর। প্রতি বছর পুজোর চার দিনই সেখানে দেখা যায় তাঁকে। এ বারেও তার অন্যথা হল না। ষষ্ঠীর সকালেই পুজোমণ্ডপে পৌঁছে যান কাজল। প্রথমে প্রতিমা দর্শন সারেন। তার পর খোশগল্পে মেতে ওঠেন আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে। বরাবরের মতো পাপারাৎজিদের সঙ্গে খুনসুটি করতেও ভোলেননি তিনি।

পুজোর চার দিন সাধারণত শাড়ি পরতেই অভ্যস্ত কাজল। তবে এ দিন তাঁর পরনে ছিল কুর্তি এবং পালাজ্জো। সঙ্গে মানানসই ওড়না এবং কানে ভারী দুল। গুচি বা আরমানি নয়, বরং হাতে বোনা ব্যাগ নিয়েই এ দিন মণ্ডপে হাজির হন কাজল। বোন তানিশা সেটি তৈরি করেছেন বলে নিজেই জানান।

গত বছর পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় নির্দেশিত ‘সোনার পাহাড়’ ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন তনুজা। দুই মেয়ের সঙ্গে এ দিন প্রতিমা দর্শন করেন তিনিও। একসঙ্গে পাপারাৎজিদের ক্যামেরায় ধরাও দেন।

আরও পড়ুন: পুজো কাটবে খুব টেনশনে: অনির্বাণ​

মা তনুজা, বোন তানিশা এবং শর্বাণী মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাজল। ছবি: টুইটার থকে সংগৃহীত।

আরও পড়ুন: দিদিদের সঙ্গে রাত জেগে ঠাকুর দেখব: পূজারিণী​

প্রয়াত চিত্রপরিচালক তথা প্রযোজক সোমু মুখোপাধ্যায়ের মেয়ে হলেও, বাঙালিয়ানা জাহির করার অভ্যাস একেবারেই নেই কাজলের। তবে দুর্গাপুজোর সময় একেবারে অন্য রূপে ধরা দেন তিনি। নিজে হাতে খাবার পরিবেশনও করেন।