×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

মধুমিতার বিদেশে পড়তে যাওয়ার পরিকল্পনা ভেস্তে দিল লকডাউন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৬ মে ২০২১ ১৩:৪৮
মধুমিতা সরকার।

মধুমিতা সরকার।

খোলা চুল, কালো লেহেঙ্গা। তার সঙ্গেই ছোট্ট টিপ এবং মানানসই ঝুমকায় নিজেকে সাজিয়েছেন মধুমিতা সরকার। ইনস্টাগ্রামে সাজের ভিডিয়ো পোস্ট করে বাড়িয়েছেন সহস্র অনুরাগীর হৃদস্পন্দন।

না, লকডাউনের নিয়ম ভেঙে এত সাজগোজ করে কোত্থাও যাচ্ছেন না টলিউডের ‘চিনি’। বাড়ির ঘেরাটোপেই আপাতত নিজেকে আবদ্ধ রেখেছেন তিনি। তবে হঠাৎ পাওয়া এই অবসরকে কাজে লাগিয়ে বানিয়েছেন রিল ভিডিয়ো। লিখেছেন, ‘লকডাউনের ফল। সব বাতিল হয়ে যাওয়া পরিকল্পনাকে চিয়ার্স’। এর সঙ্গেই জুড়ে দিয়েছেন ‘#ঘরপেরহো’। অর্থাৎ নেটাগরিকদেরও নিয়ম মেনে বাড়িতে থাকার বার্তা দিলেন অভিনেত্রী।

মধুমিতার কোন কোন পরিকল্পনায় জল ঢেলে দিল এই লকডাউন? আনন্দবাজার ডিজিটালের থেকে পক্ষ থেকে অভিনেত্রীকে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, লকডাউনের জন্য বেশ কতগুলি শ্যুট আটকে গিয়েছে তাঁর। অভিনয়ের পাশাপাশি ড্রামস শিখবেন বলেও ঠিক করেছিলেন মধুমিতা। আপাতত ঘরে থেকে সেই ইচ্ছাও পূরণ হচ্ছে না ‘চিনি’-র। মধুমিতার কথায়, “এর আগের বার লকডাউনে বাড়িতে বসে থাকাটা একটু হলেও কম ক্লান্তিকর ছিল। কিন্তু এতদিন বাড়িতে বসে আমাদের অনেকেরই কাজের অনেক ক্ষতি হয়েছে। আমরা অনেকেই কম কাজ করেছি। তাই আবারও বাড়িতে বসে থাকার জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুত নই।”

Advertisement

অভিনয়ের পাশাপাশি পড়াশোনাও চালাচ্ছিলেন মধুমিতা। নিউ ইয়র্কের একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে চলচ্চিত্র নির্মাণ নিয়ে পড়াশোনা করছেন তিনি। দেড় মাসের একটি কোর্সের জন্য তাই আমেরিকা যাওয়ার পরিকল্পনাও করেছিলেন। আপাতত সেই রাস্তা বন্ধ হওয়ায় অনলাইন ক্লাসে পড়াশোনা করবেন মধুমিতা। কিন্তু অভিনয় জগতে এত সাফল্যের পরেও নতুন করে পড়াশোনা কেন? অভিনেত্রীর কথায়, “আমি এমন কিছু জানতে চাই, শিখতে চাই যা আমাকে আমার কাজে সাহায্য করবে। অভিনয় করতে গেলে ছবি কী ভাবে তৈরি হয় সেটাও কিছুটা জানা দরকার। তা হলে পরিচালকের কথা বুঝে নিতে আরও সুবিধা হয়। তাই আমি কাজের ফাঁকেই এ রকম কিছু কোর্স করব বলে ভেবে রেখেছি।”

আপাতত দিন গুনছেন মধুমিতা। পরিস্থিতি কিছুটা ঠিক হলেই বিদেশে উড়ে যাবেন অভিনেত্রী।

Advertisement