Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

শ্রীদেবীর মানভঞ্জনের জন্য গাড়িভর্তি ফুল পাঠিয়েছিলেন অমিতাভ

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৬ মার্চ ২০২১ ১১:৩২
অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে থাকতেন নায়িকারা। কিন্তু শ্রীদেবী ছিলেন এর বিপরীত মেরুতে। তিনি একাধিক বার অমিতাভের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

শ্রীদেবীর মানভঞ্জনের জন্য যেতে হয়েছিল অমিতাভ এবং ছবির পরিচালককে। নয়তো তিনি অমিতাভের সঙ্গে একই ছবিতে অভিনয়ের জন্য রাজি হচ্ছিলেন না।
Advertisement
সে সময় শ্রীদেবী বলিউডের সুপারস্টার। তাঁর নামে সিনেমা হলে ঢল নামে দর্শকদের। অন্যদিকে, অমিতাভের কেরিয়ার কিছুটা ঢলে পড়েছিল পড়ন্ত বেলায়।

নয়ের দশকের শুরুতে শ্রীদেবীর কাছে ‘খুদা গওয়াহ’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব আসে। কিন্তু পরিচালক মুল্ক এস আনন্দের সেই প্রস্তাব প্রথমে ফিরিয়ে দেন শ্রীদেবী।
Advertisement
কিন্তু শ্রীদেবী রাজি ছিলেন না বচ্চনের সঙ্গে একই ছবিতে অভিনয় করতে। কারণ তিনি মনে করতেন বিগ বি-র ছবির নায়ক এবং বিষয়বস্তু তিনি নিজেই হন। তাই নায়িকাদের বিশেষ কিছু করার থাকে না।

প্রযোজকদেরও বলে দিতেন শ্রীদেবী। অমিতাভ বচ্চন নায়ক হলে সেই ছবিতে নায়িকা হিসেবে খুব বড় ভূমিকায় অভিনয়ের সুযোগ না থাকলে, তিনি কাজ করবেন না।

শ্রীদেবীকে রাজি করাতে অমিতাভ নিজে গিয়ে তাঁর সঙ্গে কথা বললেন। শ্রীদেবী তাঁর প্রস্তাবের উত্তরে দু’টি শর্ত রাখেন। তাঁর শর্ত ছিল, চিত্রনাট্যে নায়িকার ভূমিকাকে নায়কের ভূমিকার সমতুল্য করতে হবে। পাশাপাশি, অমিতাভের সমান পারিশ্রমিকও দাবি করেন শ্রীদেবী।

শ্রীদেবীর দাবি মানতে শেষ অবধি ছবিতে মা এবং মেয়ে, দু’টি ভূমিকাতেই তাঁকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়। ছবিতে মেয়ের ভূমিকায় প্রথমে অভিনয়ের কথা ছিল সায়রা বানুর আত্মীয়া শাহিনের।

কিন্তু শ্রীদেবী দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করায় ছবি থেকে বাদ পড়েন শাহিন। শোনা যায়, শ্রীদেবীর জন্য ছবির সেটে এক ট্রাকভর্তি ফুল পাঠিয়েছিলেন বচ্চন। তাঁর এই আচরণ শ্রীদেবীর মন ছুঁয়ে গিয়েছিল।

সুপারস্টারের তত্ত্ব ছাড়া অন্য একটি সূত্র বলে, বনি কপূরের কারণেই শ্রীদেবী বেশি কাজ অমিতাভের সঙ্গে করেননি। দর্শকদের একটি অংশের দাবি, অমিতাভের জন্যই প্রত্যাশিত সাফল্য পাননি অনিল কপূর। তিনি দীর্ঘ দিন অমিতাভের মেঘে ঢাকা ছিলেন। তাই তাঁর সঙ্গে একই ছবিতে কাজ করার জন্য শ্রীদেবীকে অনুমতি দিতেন না বনি।

শেষ অবধি অবশ্য বক্স অফিসে সফল হয়নি ‘‘খুদা গওয়াহ’। এর পর ‘মহব্বতেঁ’ এবং ‘বাগবান’ ছবিতেও অমিতাভের বিপরীতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন শ্রীদেবী। কিন্তু তিনি রাজি হননি।

ইন্ডাস্ট্রিতে অমিতাভের মতো সুপারস্টার পরিচয় পেয়েছিলেন শ্রীদেবীও। নায়িকাদের মধ্যে তিনিই প্রথম সুপারস্টার। নিজের দীর্ঘ কেরিয়ারে সেরকম দাপটের সঙ্গেই বিরাজ করেছেন শ্রীদেবী।