×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

সম্পর্কে তৃতীয় পুরুষ, রাগে প্রেয়সী ক্যাটরিনার জিনিসপত্র নিজের বাড়ি থেকে ছুড়ে রাস্তায় ফেলে দেন সলমন

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩১ মে ২০২০ ১৬:০০
সলমন খান আর ক্যাটরিনা কইফের প্রেমের গুঞ্জন এক সময়ে ছিল টিনসেল টাউনের বহু চর্চিত বিষয়। কিন্তু জানেন কি, ওঁদের মধ্যে অশান্তিও কিছু কম হয়নি!

এমনও হয়েছে, রাগের চোটে ক্যাটের জিনিসপত্র ছুড়ে রাস্তায় ফেলে দিয়েছিলেন সলমন। বার করে দিয়েছিলেন নিজের বাড়ি থেকে। পরে ক্যাটরিনা নিজের ভুল বুঝতে পারেন।
Advertisement
সলমনের সাহায্যের হাত পাওয়ার আগে ক্যাটরিনা ছিলেন ইন্ডাস্ট্রির স্ট্রাগলিং নায়িকা। সলমনের নায়িকা হওয়ার পরেই বলিউডে পরিচিতি পান ক্যাটরিনা।

ইন্ডাস্ট্রিতে সলমন ছিলেন ক্যাটরিনার গডফাদার। নিজের বৃত্তের বহু পরিচালক, প্রযোজকের সঙ্গে ক্যাটের পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন সল্লু মিয়াঁ।
Advertisement
ধীরে ধীরে ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচিতি পান ক্যাটরিনা। সলমন ছাড়াও অন্য নায়কের সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ আসতে থাকে। সেখানেই দেখা দেয় বিপত্তি।

‘নিউইয়র্ক’ ছবিতে ক্যাটের বিপরীতে ছিলেন জন আব্রাহাম। এই সময় থেকেই ক্যাট আর জনের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন শোনা যেতে থাকে।

যদিও সলমন বা জন, কারও সঙ্গেই নিজের সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি ক্যাটরিনা। কিন্তু তাঁর একটি মোবাইল ফোনের বিল সলমনের হাতে পড়তেই সমস্যা জটিল হয়।

সেই নম্বর থেকে জনের নম্বরে প্রচুর ফোনকল এবং মেসেজ করা হয়েছে বলে দেখা যায়। সেইসঙ্গে জনও উত্তরে ফোন করেছেন। মেসেজ পাঠিয়েছেন। এই ঘটনাকে ভাল ভাবে নেননি সলমন। পজেসিভ বলে তাঁর বদনাম ছিল বরাবরই।

সংবাদমাধ্যমের সামনে ক্যাটরিনা এবং জন দু’জনেই তাঁদের যাবতীয় ফোনকল ও মেসেজকে ‘কেজো’ বলে বর্ণনা করেছিলেন। কিন্তু সলমনের কাছে এই দাবিতে চিঁড়ে ভেজেনি।

ক্যাটরিনা তখন থাকতেন সলমনের ‘গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে’-ই। তাঁর হিন্দি উচ্চারণ থেকে ছবি বাছাইয়ের মাপকাঠি, সব ঠিক করে দিতেন সলমন।

তিনি নিজের জীবনের অংশ বলেই মনে করতেন ক্যাটরিনাকে। সেখানে ক্যাটের হৃদয়ে অন্য পুরুষের আগমনকে মেনে নিতে পারেননি ভাইজান।

শোনা যায়, এই ঘটনার জেরে ক্যাটরিনাকে তো বার করেই দিয়েছিলেন সলমন। এমনকি, তাঁর জিনিসপত্রও ছুড়ে ফেলে দিয়েছিলেন।

ক্যাট তখন ব্যস্ত ছিলেন ‘নিউইয়র্ক’ ছবির প্রচারে। তাঁকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাও করা হয়েছিল। সলমনের রোষ থেকে বাঁচতে তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেন, জন আব্রাহামের সঙ্গে তাঁর কাজের বাইরে কোনও সম্পর্ক নেই।

এমনকি, এ-ও স্বীকার করেছিলেন সলমনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক আছে। তাঁর জিনিসপত্রও সলমনের কাছেই আছে বলে জানান ক্যাটরিনা। সলমন তাঁর জিনিস ছুড়ে বাড়ির বাইরে ফেলে দেন, এ কথাও অস্বীকার করেন ক্যাটরিনা।

এখান থেকেই সলমন-ক্যাটরিনার সম্পর্কে ভাঙন শুরু। সেই ভাঙনে আর প্রলেপ লাগেনি। তা ছাড়া সলমনের সঙ্গে জন আব্রাহামের সম্পর্ক ভাল ছিল না। তাঁর সঙ্গে নিজের প্রেমিকার ঘনিষ্ঠতা মানতে পারেননি তিনি।

ঐশ্বর্যের পরে ক্যাটরিনার সঙ্গেই সলমনের সিরিয়াস সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল। সেখানে প্রেয়সীর তরফে এই মানসিক ধাক্কা মেনে নিতে প্রস্তুত ছিলেন না সলমন।