Advertisement
২৭ মার্চ ২০২৩
Anjali Arora

অন্ধকারে ফাঁকা রাস্তায় গা এলিয়ে ‘তু আজা’ নেচে ফের চর্চায় অঞ্জলি, ঘুরছে ভিডিয়ো

সম্প্রতি ডিজে উসমান ভাত্তির ‘তু আজা’ গানটি জনপ্রিয় হয়েছে। সেই গানেই ‘উত্তেজক’ বিভঙ্গে অন্ধকার রাস্তায় অঞ্জলির নাচ ভাইরাল।

লোকের কথায় পরোয়া নেই অঞ্জলির। এমন নাচ প্রায়ই নাচেন তিনি। ‘কাঁচা বাদাম’ গানে ঠোঁট মিলিয়ে নেচে মাস কয়েক আগেই ভাইরাল হয়েছিলেন অঞ্জলি।

লোকের কথায় পরোয়া নেই অঞ্জলির। এমন নাচ প্রায়ই নাচেন তিনি। ‘কাঁচা বাদাম’ গানে ঠোঁট মিলিয়ে নেচে মাস কয়েক আগেই ভাইরাল হয়েছিলেন অঞ্জলি। ফাইল চিত্র

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২২ ১৪:৪২
Share: Save:

কিছু দিন অন্তর তিনি নিজেই বিতর্ক ডেকে আনেন, না বিতর্কই তাঁকে ধাওয়া করে— বলা মুশকিল। ফাঁকা রাস্তায় নেচে ফের শিরোনামে অঞ্জলি অরোরা। এমএমএস-কাণ্ডে নাম জড়ানোয় ইতিমধ্যেই পরিচিত নাম অঞ্জলি। ‘লক আপ’ প্রতিযোগী হিসাবে যত না চর্চায় এসেছেন, এমএমএসের অনাবৃত তরুণী সন্দেহে তার চেয়ে বেশি লোক তাঁকে চিনেছেন। সম্প্রতি ডিজে উসমান ভাত্তির ‘তু আজা’ গানটি বিপুল জনপ্রিয় হয়েছে। সেই গানেই ‘উত্তেজক’ বিভঙ্গে অন্ধকার রাস্তায় অঞ্জলির নাচ ভাইরাল।

Advertisement

কালো টপ, ধূসর ট্রাউজ়ারস আর সবুজ জুতোয় নিজস্ব ফ্যাশনে নজর কেড়েছেন তারকা। মাথায় চুড়ো করে বাঁধা চুল। ঘুরে ঘুরে কোমর দুলিয়ে নেচেই চললেন। সেই দেখে চোখ টাটাল নিন্দকদের। মন্তব্য ভেসে এল, ‘‘যা-ই করুন, আপনি পাতে দেওয়ার যোগ্য নন!’’ কেউ আবার তীব্র ঘৃণা নিয়ে বললেন ‘‘গোলমেলে মহিলা, মোটেও সুবিধের নন!’’

তবে লোকের কথায় পরোয়া নেই অঞ্জলির। এমন নাচ প্রায়ই নাচেন তিনি। ‘কাঁচা বাদাম’ গানে ঠোঁট মিলিয়ে নেচে মাস কয়েক আগেই ভাইরাল হয়েছিলেন অঞ্জলি। কঙ্গনা রানাউতের লক আপ রিয়্যালিটি শো-তেও বিশেষ আকর্ষণ ছিলেন তিনি। তবে বিতর্ক পিছু ছাড়েনি। এমএমএস-কাণ্ডে ফেঁসে কেরিয়ার নষ্ট হয়ে যেতে বসেছিল অঞ্জলির। ভাইরাল হওয়া যৌনমিলনে লিপ্ত এক নারীশরীরকে তাঁর বলেই গুলিয়েছিলেন অধিকাংশ মানুষ। বিশ্বাস করাতে পারছিলেন না অঞ্জলি, যে সেই তরুণী আর তিনি এক নন।

সেই ঘটনার পর এমনিতেই পান থেকে চুন খসলে তাঁকে নিয়ে গুজব রটে। পোশাক নিয়েও তেমনই সমালোচনা শুরু হয়েছিল সম্প্রতি। ‘রস’ ছবির বিখ্যাত গান, আশার গলায় ‘সাজনা হ্যায় মুঝে, সাজনা কে লিয়ে’-তে অশ্লীল পোশাক পরার অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। তবে এ সব আর ধর্তব্যের মধ্যে আনতে চান না অঞ্জলি। সাফ জানান, ‘‘লোকে শাড়ি পরলেও কথা শোনায়। ক্রপ টপ পরলেও তো পেট দেখা যায়। শাড়ি পরলেও একই ব্যাপার। সবই অশ্লীল? আসলে লোকে তক্কে তক্কে থাকে। ট্রোল করার ফিকির খোঁজে।’’ অঞ্জলির দাবি, সবাইকে খুশি করে চলা যায় না দুনিয়ায়। ভালবাসা যেমন পাওয়া যায়, ঘৃণা, নিন্দাও জীবনধারণের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক ভাবে নেওয়া উচিত।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.