×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৭ জুন ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

নিজের ছবির ব্যর্থতার জন্য সরাসরি জন আব্রাহমকে দায়ী করলেন অর্জুন কপূর!

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৫ মার্চ ২০২১ ১৫:২৩
একই দিনে দুটো ছবি একসঙ্গে মুক্তি পেলে পরিচালক এবং অভিনেতাদের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই চলে। সরাসরি কেউ কাউকে দোষারোপ না করতে পারলেও মনে মনে কিন্তু একে অপরের প্রতি অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হন।

একদিকে যেমন সেই দুই ছবির মধ্যে সফল ছবির কলাকুশলীরা কড়া টক্কর দিয়ে গর্ব অনুভব করেন, তেমনই অসফল ছবি কলাকুশলীরা আবার নিজেদের সান্তনা দিতে অসাফল্যের জন্য অন্যদের দায়ী করেন।
Advertisement
কিন্তু এটাও তো ঠিক, দর্শক সে ছবিই পছন্দ করবেন যা তাঁদের মনে ধরবে। ছবির অসাফল্য কিংবা সাফল্যের পিছনে দিন ক্ষণ অবশ্যই একটি বড় কারণ। কিন্তু তার থেকেও অনেক বড় কারণ দর্শক।

জানেন কি দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ছবির কলাকুশলীদের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই একবার প্রকাশ্যে চলে এসেছিল। ছবি অসফল হওয়ার জন্য সরাসরি দায়ী করা হয়েছিল সফল ছবির নায়ককে!
Advertisement
এমন ঘটনাই ঘটেছিল জন আব্রাহাম এবং অর্জুন কপূরের মধ্যে। নিজের ছবি অসফল হওয়ার জন্য সরাসরি জনকে দায়ী করে বসেছিলেন অর্জুন কপূর।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে জনের ছবি ‘মুম্বই সাগা’ এবং অর্জুনের ছবি ‘সন্দীপ অউর পিঙ্কি ফরার’। ‘মুম্বই সাগা’য় জনের বিপরীতে রয়েছেন কাজল অগরওয়াল। ‘সন্দীপ অউর পিঙ্কি ফরার’-এ অর্জুনের সঙ্গে পরিণীতি চোপড়াকে দেখা গিয়েছে।

প্রথমে নিজের ছবি মুক্তির দিন ক্ষণ প্রকাশ করেন অর্জুন। বহু দিন ধরেই এই ছবিটি মুক্তির সঠিক ক্ষণের অপেক্ষায় ছিল পুরো দল।

সমস্ত সিনেমা হলের মালিকদের সঙ্গে কথা বলে প্রায় ১ বছর ধরে অপেক্ষা করার পর ছবি মুক্তির তারিখ ঘোষণা করেছিলেন অর্জুন।

ঠিক তার দু’দিন পরই জন নিজের ছবি মুক্তির তারিখ ঘোষণা করেন। অর্জুনের ছবি যে দিন মুক্তি পেতে চলেছিল, জনের ছবি মুক্তির দিনও সেটাই ছিল।

এর পরই নেটমাধ্যমের পাতায় একটি বড় পোস্ট করেন তিনি। পোস্টের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত জনের দিকেই অভিযোগের আঙুল ছিল তাঁর।

ওই পোস্টে সরাসরি জনের নাম না নিলেও বিষয়টি বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারও। পোস্টের এমন বক্তব্য ছিল, সকলেই ইন্ডাস্ট্রির এই কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছেন। তাই প্রত্যেকেরই উচিত একে অপরের পাশে থাকা।

নিজের ছবি মুক্তির দিনই জনের ছবি মুক্তির প্রসঙ্গে তিনি পরোক্ষভাবে বলেন, ওঁরও কিছু কারণ থাকতে পারে এ রকম করার। প্রতিবার ফোন করে কারণ জিজ্ঞাসা করা সম্ভব নয়। তিনিও নিশ্চয় কিছু ভেবেচিন্তে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এই সমস্ত ঘটনা তাঁকে কষ্ট দেয় বলেও মন্তব্য করেন অর্জুন। তারপর ওই ছবির প্রশংসা করে লেখেন, তিনি চান দুটো ছবিই ভাল ফল করুক বক্স অফিসে। তাঁদের কাজ দর্শকদের জন্য ছবি বানানো। সেটাই করবেন তিনি।

প্রসঙ্গত অর্জুনের দুশ্চিন্তার কারণ সঠিক ছিল। তাঁর ছবি টিকতে পারেনি জনের কাছে। মুক্তির পর থেকেই জনের ছবি যখন বক্স অফিসে ভাল ফল করছে অর্জুনের ছবি তেমন ব্যবসা করতে পারেনি। অর্জুনের পোস্ট নিয়ে অবশ্য জন কোনও মন্তব্য করেননি।