Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

বিনোদন

বিয়ের পরে ন্যুড মডেলিং করেন দিদিমা, নবাগতা আলায়াও কি প্রতিমার মতোই দুঃসাহসী?

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৩:৫৭
কবীর ও প্রতিমা বেদীর নাতনি। পূজা বেদীর মেয়ে। শুধুমাত্র এই পরিচয় নিয়েই খুশি থাকতে চাননি আলায়া ফার্নিচারওয়ালা। নিজের প্রতিভার জোরে তিনি পায়ের নীচে জমি শক্ত করতে চান ইন্ডাস্ট্রিতে।

আলায়ার জন্ম ১৯৯৭ সালের ২৮ নভেম্বর। তাঁর যখন ছ’বছর বয়স, আলায়ার বাবা ফারহান এব্রাহিম ফার্নিচারওয়ালার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় পূজার। মেয়ে আলায়া এবং ছেলে ওমরকে সিঙ্গল পেরেন্ট হয়ে বড় করেন পূজা।
Advertisement
মায়ের উৎসাহ ও অনুপ্রেরণাতেই ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছেন আলায়া। তবে অভিনয়ের সুযোগ সহজে আসেনি। বেশ কিছু ছবিতে প্রত্যাখ্যাত হন আলায়া। প্রথম নজরে আসেন মা পূজা বেদীর সঙ্গে একটি রিয়েলিটি শো-এ অংশ নেওয়ার পর।

মুম্বইয়ের যমুনাবাঈ নার্সিং স্কুল থেকে পড়াশোনা করেন আলায়া। তারপর পাড়ি দেন নিউ ইয়র্ক। ফিল্ম নিয়ে উচ্চশিক্ষার উদ্দেশ্যে। তবে সেই কোর্স তিনি শেষ করেননি। নিউ ইয়র্ক ফিল্ম অ্যাকাডেমির কোর্স অসম্পূর্ণ রেখেই আলায়া ফিরে আসেন দেশে।
Advertisement
এ বছর নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেন আলায়া। তাঁর প্রথম ছবি ‘জওয়ানি জানেমন’ মুক্তি পেয়েছে ৩১ জানুয়ারি। বক্স অফিসে সে ভাবে দাগ কাটতে না পারলেও নজর কেড়েছেন আলায়া। প্রথম ছবিতেই সইফ আলি খান ও তবুর সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ তাঁকে কেরিয়ারের শুরুতেই অনেকটা এগিয়ে দেবে বলে ধারণা ভক্তদের।

নবাগতা আলায়াকে ঘিরে ইতিমধ্যেই ইন্ডাস্ট্রিতে শোনা যাচ্ছে গুঞ্জন। অনিল ও সুনীতা কপূরের ছেলে হর্ষবর্ধন কপূর নাকি তাঁর বিশেষ বন্ধু।

অভিনেত্রী আলায়া একজন প্রশিক্ষিত কত্থক শিল্পীও। অবসরে ভালবাসেন ছবি দেখতে। শাহরুখ খান, কার্তিক আরিয়ান, দীপিকা পাড়ুকোন তাঁর প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী।

মা পূজা বেদীর সঙ্গে আলায়ার সম্পর্ক বন্ধুর মতো। দুই সন্তানের মা পূজা বছর খানেক আগে এনগেজড হয়েছেন মানেক কন্ট্রাক্টরের সঙ্গে। সে সম্পর্ক সহজেই মেনে নিয়েছেন আলায়া।

আলায়ার পরিবারে বর্ণময়তার ধারা জোরালো। তাঁর দিদিমা প্রতিমা পরিবারের অসম্মতি উপেক্ষা করে ঘর ছেড়েছিলেন কবীর বেদীর সঙ্গে। বিয়ের পরে করেছেন ন্যুড মডেলিং। সম্পর্কের টানাপড়েনে একসময় দাম্পত্য থেকে বেরিয়ে আসতেও দ্বিধা করেননি দুঃসাহসী প্রতিমা। তার পরে সব ছেড়ে জীবনের মূলমন্ত্র করেছিলেন নাচকেই।

অন্য দিকে, সুদর্শন অভিনেতা কবীর বেদীও জীবন কাটিয়েছেন নিজের শর্তেই। বিয়ে করেছেন চারবার। পরভীন বাবির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে এক সময়ে যথেষ্ট চর্চা হয়েছে।

অনেকেই জানেন না, কবীর বেদীর মা, ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত ফ্রিডা বেদী সক্রিয় শরিক ছিলেন ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের। মধ্যবয়সে তিনি বৌদ্ধ সন্ন্যাসিনী হয়ে সংসার ছেড়েছিলেন।

এ ভাবেই ছক ভাঙার ধারা জন্মগত ভাবে বহন করে চলেছেন আলায়া। নিজের জীবনকে কী ভাবে শাসন করবেন এই তরুণ তুর্কি? জানতে আগ্রহী বিনোদন দুনিয়া এবং তাঁর অনুরাগীরাও।   (ছবি: ফেসবুক)