Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বিনোদন

প্রথম ছবি ফ্লপ হলেও হিট এই উঠতি তারকারা

সংবাদ সংস্থা
২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ২০:০০
পর্দায় এক ঝাঁক নয়া প্রতিভার দেখা মিলেছে এ বছর। তাঁদের মধ্যে কারও ছবি চলেছে, কারও চলেনি। তবে প্রথম ছবির নিরিখে ভবিষ্যত্ বিচার হয় না। তেমন হলে আর সুপারস্টার হওয়া হত না সলমন-শহরুখদের। এ বছরও তেমনই ঘটেছে। প্রথম ছবি মুখ থুবড়ে পড়লেও, সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন অনেকে। বেশ কিছু কাজও বাগিয়ে ফেলেছেন।

উত্কর্ষ শর্মা: বাবা অনিল শর্মা ডাকসাইটে পরিচালক। ‘গদর’-এর মতো ছবি তৈরি করেছেন। এ বছর ‘জিনিয়াস’ ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন উত্কর্ষ। প্রথম ছবিতেই নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি-র মতো পোড় খাওয়া অভিনেতার সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়েছেন। তাঁর অভিনয়ও প্রশংসিত হয়েছে।
Advertisement
ঈশিতা চৌহান: ‘জিনিয়াস’ ছবিতে উত্কর্ষ শর্মার নায়িকা ছিলেন ঈশিতা। কম বয়স থেকেই বলিউডে কাজ করছেন তিনি। হিমেশ রেশমিয়ার ‘তেরা সুরুর’ ছবিতে শিশু শিল্পী ছিলেন।

রাধিকা মদন: বলিউড নিয়ে বিশেষ মোহ ছিল না রাধিকার। তাই ধীরে এগিয়েছেন। এক সময় বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে নাচের শো-ও করতেন। তার পর টিভি সিরিয়ালে কাজ করার সুযোগ পান। আর এ বছর বলিউডে পা রাখেন বিশাল ভরদ্বাজের ‘পটাখা’ ছবিতে অভিনয় করে। ছবি ফ্লপ হলেও, তাঁর অভিনয় মন কেড়েছে সমালোচকদের।
Advertisement
আয়ুষ শর্মা: বাবা রাজনীতিক। অল্প বয়সে সলমন খানের বোনকে বিয়ে করেছেন। এক সন্তানের বাবাও। তার পরই বলিউডে পা রেখেছেন আয়ুষ শর্মা। সলমনের প্রযোজনায় তৈরি ‘লভযাত্রী’ ছবির নায়ক ছিলেন তিনি। ছবি তেমন চলেনি। তবে তাঁকে পছন্দ হয়েছে দর্শকের।

ওয়ারিনা হুসেন: জন্ম আফগানিস্তানে। বলিউডের প্রতি ঝোঁক সেই ছোট থেকেই ছিল। সলমন খানের প্রযোজনায় তৈরি ‘লভযাত্রী’ ছবির মাধ্যমে এ বছর আত্মপ্রকাশ করেছেন। ছবি ফ্লপ হলেও তাঁর ঝকঝকে উপস্থিতি মন কেড়েছে দর্শকের। ভাল নাচতেও পারেন ওয়ারিনা। সম্প্রতি বাদশার একটি গানে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

রোহন মেহরা: অভিনেতা বিনোদ মেহরার ছেলে। ‘বাজার’ ছবিতে অভিনয় করে এ বছর বলিউডে পা রেখেছেন। ছবিতে সইফ আলি খানের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অভিনয় করেছেন তিনি।

মৌনী রায়: বহু বছর ধরে টিভি সিরিয়ালে কাজ করছিলেন এই বঙ্গ তনয়া। বলিউডে পা রাখেন এ বছর। তাও পুরোদস্তুর নায়িকা হিসাবে। অক্ষয় কুমারের বিপরীতে গোল্ড ছবিতে তাঁর অভিনয় পছন্দ হয়েছে সকলের। আগামী বছর রণবীর কপুর এবং আলিয়া ভট্টের সঙ্গে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ ছবিতে দেখা যাবে তাঁকে।

আয়েষা শর্মা: অভিনেত্রী নেহা শর্মার বোন আয়েষা। একাধিক বিজ্ঞাপনে তাঁকে দেখা গিয়েছে। এ বছর বলিউডে পা রাখেন। জন আব্রাহামের ‘সত্যমেব জয়তে’ ছবিতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

মালবিকা মোহনান: দক্ষিণী ছবিতে পরিচিত মুখ তিনি। বলিউডে পদার্পণ এ বছর। তাও আবার মজিদ মজিদির ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’-এর মাধ্যমে। শহিদ কপুরের ভাই ইশান খট্টরেরও আত্মপ্রকাশও এই ছবির মাধ্যমেই।

দুলকার সলমন: বাবা মলয়ালম ছবির সুপারস্টার। তিনি নিজেও কম যান না। বেশ কিছু আঞ্চলিক ছবিতে নিজের জাত চিনিয়েছেন। তবে বলিউড যাত্রা শুরু এ বছর। ‘করওয়াঁ’ ছবিতে ইরফান খানের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার সুযোগ পান তিনি।

বনিতা সাধু: একসময় চুটিয়ে মডেলিং করেছেন। মুখ দেখিয়েছেন বিজ্ঞাপনেও। এ বছর সুজিত সরকারের ‘অক্টোবর’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ। ছবিতে তাঁর নায়ক ছিলেন বরুণ ধবন।

সানি কৌশল: অভিনেতা ভিকি কৌশলের ভাই এই সানি। অক্ষয় কুমারের ‘গোল্ড’ ছবিতে তাঁর অভিনয় মন কেড়েছে দর্শকের।