সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মোমবাতি তরজায় বলিউড

প্রধানমন্ত্রীর বার্তার পরেই দু’ভাগে বিভক্ত বলি তারকারা। কে কী বলছেন?

Tapsee and Bhumi
তাপসী আর ভূমি

বন্ধু আর শত্রু কোনওটাই চিরস্থায়ী নয় বিনোদন দুনিয়ায়। একসঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে পর্দার সামনে যাঁর সঙ্গে কাজ করছেন অভিনেতা, পর্দার আড়ালে তাঁর সঙ্গে বাকবিতণ্ডাতেও জড়াতে পারেন। বিজেপি এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তোষামোদ করা নিয়ে ফের একবার মেরুকরণের রাজনীতি বলিউডে। 

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী একটি ভিডিয়ো বার্তার মাধ্যমে দেশবাসীকে অনুরোধ জানিয়েছেন, আগামী রবিবার রাত ন’টার সময়ে সকলে নিজেদের বাড়ির সব আলো নিভিয়ে দিয়ে ন’মিনিটের জন্য যেন বাড়ির ছাদ বা বারান্দায় প্রদীপ, মোমবাতি, টর্চ কিংবা মোবাইলের ফ্ল্যাশ জ্বালিয়ে রাখেন। এই ঘোষণার পরই তর্কে শামিল আমজনতা। কেউ বাহবা দিচ্ছেন, কেউ আবার গিমিক বলে কটাক্ষ করছেন। এই খেলা চলেছে বলিউডেও। প্রধানমন্ত্রীর আবেদনের প্রেক্ষিতে বলিউড সেলেবরা একের পর এক প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করেন। এই তালিকায় রয়েছেন তাপসী পান্নু, অর্জুন কপূর, অনুভব সিংহ, হেমা মালিনী, বীর দাস, বিবেক অগ্নিহোত্রী, ভূমি পেডনেকরেরা। 

‘সান্ড কী আঁখ’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন তাপসী আর ভূমি। কিন্তু এ ক্ষেত্রে তাপসীর বিরোধী ক্যাম্পে ভূমি। মোদীর বার্তার পরে তাপসীর ব্যঙ্গাত্মক টুইট, ‘‘নতুন কাজ পেলাম! ইয়ে ইয়ে ইয়ে!!!’’ তাঁর এই পোস্ট নিয়ে রীতিমতো ঝড় বয়ে চলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কেউ কেউ তাপসীকে প্রশ্ন করেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করেছেন কি না! কেউ কেউ আবার পাল্টা আক্রমণ করে লিখেছেন, ‘‘তাপসী তোমার নতুন ছবিও ফ্লপ হবে। ইয়ে ইয়ে ইয়ে।’’ যদিও অভিনেত্রী এ সবের কোনও উত্তর দেননি। এর আগেও প্রধানমন্ত্রীর কাজের সমালোচনা করতে দেখা গিয়েছে তাপসীকে। অন্য দিকে তাঁর সহকর্মী এবং প্রিয় বান্ধবী ভূমি লিখেছেন, ‘‘৫ এপ্রিল রাত ন’টায় ন’মিনিটের জন্য আমরা সকলে ফের একতা প্রদর্শন করব....’’

মোদীর বার্তা নিয়ে স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান বীর দাসের মন্তব্য, ‘‘রবিবার দেশের সংহতির ইন্ডোর শো। এটা কিন্তু দীপাবলি নয়।’’  ‘এইটিথ্রি’ ছবিতে মহিন্দর অমরনাথের চরিত্রে যিনি অভিনয় করছেন, সেই শাকিব সালেমের  পোস্টেও ব্যঙ্গের ছোঁয়া, ‘‘বিগ বসের নতুন কাজের ঘোষণা কী শুনেছ।’’

উল্টো দিকে মোদীকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেওয়ার লোক নেহাত কম নেই বলিউডে। অর্জুন কপূর, বিবেক অগ্নিহোত্রী, অনুভব সিংহরা প্রধানমন্ত্রীর সমর্থনেই হাত তুলেছেন। অভিনেত্রী এবং বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনী স্বাভাবিক ভাবেই দলের সুরে সুর মিলিয়েছেন, ‘‘আসুন, আমরা করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর পাশে থাকার শপথ গ্রহণ করি।’’ বলিউডে নবাগতা মানুষী ছিল্লর লিখেছেন, ‘‘ফের সময় এসেছে নিজেদের একতা দেখানোর...’’

‘আর্টিকল ফিফটিন’, ‘থাপ্পড়’-এর মতো ছবির পরিচালক অনুভব সিংহের টুইট, ‘‘মিস্টার মোদী দেশের মানুষকে যে ভাবে চেনেন, তা অন্য কেউ চেনেন না।’’ পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী আবার মোদীর সমালোচকদের এক হাত নিয়ে লিখেছেন, ‘‘ইডিয়টরা মোদীকে নিয়ে ট্রোল শুরু করার আগে জানিয়ে রাখি, ভারত একজন সেরা নেতাকে পেয়েছে...’’

সেলেবদের এই তরজা নতুন নয়। রবিবার কারা মোমবাতি জ্বালানোয় শামিল হন, তার দিকে তাকিয়ে আমজনতা। তার পরেই একদফা তর্ক-বিতর্ক শুরুর সম্ভাবনাও রয়েছে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন