×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

স্বামী ফিরে এসেছেন, বিচ্ছেদের জল্পনা উড়িয়ে নিভৃত অবসর সুস্মিতার ভাইয়ের স্ত্রী চারুর

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৫ মার্চ ২০২১ ১০:৪৬
তাঁর দাম্পত্য নিয়ে গুঞ্জন চলছিল বেশ কিছু মাস ধরে। তবে স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কে যে সমস্যা হয়েছিল, সে কথা স্বীকার করেছিলেন তিনি নিজেই। তার পরই তীব্র হয় জল্পনা। সব জল্পনায় জল ঢেলে সুস্মিতা সেনের ভাইয়ের স্ত্রী চারু আসোপা। শেয়ার করলেন গোয়ায় ছুটি কাটানোর ছবি। নেটাগরিকরা অনেকেই সেখানে তাঁকে তুলনা করেছেন সুস্মিতার সঙ্গে।

স্বামী রাজীব সেনের সঙ্গে চারু এখন ছুটি কাটাচ্ছেন গোয়ায়। শেয়ার করেছেন স্বামীর সঙ্গে তাঁর অন্তরঙ্গ মুহূর্তও।
Advertisement
তবে নেটমাধ্যমে সবথেকে বেশি চর্চিত গাঢ় লাল হ্রস্ব পোশাকে চারুর ছবি। সেখানে তাঁর শরীরী বিভঙ্গে মুগ্ধ অনুরাগীরা।

অভিনেত্রী চারুর নিজস্ব জামাকাপড় তৈরির সংস্থা আছে। ২০২০-র অক্টোবরে এই সংস্থা শুরু করেছেন তিনি।
Advertisement
ভারতীয় টেলিভিশনে বিভিন্ন ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন তিনি। ‘অগলে জমন মোহে বিটিয়া হি কি যো’, ‘ইয়ে রিশতা ক্যয়া কেহলতা হ্যায়’, ‘দিয়া অউর বাতি হম’, ‘জী মা’ এবং ‘আকবর কা বল বীরবল’-এর মতো ধারাবাহিকের অংশ ছিলেন তিনি।

এখনও অবধি দু’টি ছবিতে অভিনয় করেছেন চারু। ২০১১ সালে মুক্তি পায় তাঁর প্রথম ছবি ‘ইমপেশেন্ট বিবেক’। দ্বিতীয় ছবি ‘কল ফর ফান’ মুক্তি পেয়েছিল তার ছ’ বছর পরে।

অন্যদিকে প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী সুস্মিতা সেনের ভাই রাজীব পেশায় একজন মডেল। এক রাজকীয় অনুষ্ঠানে তাঁর সঙ্গে চারুর বিয়ে হয় ২০১৯-এর ৭ জুন।

কিন্তু বিয়ের পরে ১ বছর যেতে না যেতেই তাঁদের অশান্তির ছবি প্রকাশ্যে চলে আসে। শোনা যায়, প্রথম বিবাহবার্ষিকীর আগেই নাকি বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন রাজীব।

তাঁদের সম্পর্কের দ্বন্দ্ব ধরা পড়েছিল চারুর এক সাক্ষাৎকারেও। সংবাদ মাধ্যমে বলেছিলেন, তিনি জানেন না তাঁরা একসঙ্গে আছেন, না আলাদা আছেন।

২০২০ জুড়ে লকডাউনে রাজীব ছিলেন দিল্লিতে। মুম্বইয়ে ছিলেন চারু। সম্পর্কের পরিণতি কী? উত্তরে চারু বলেছিলেন তিনি সব ঈশ্বরের উপর ছেড়ে দিয়েছেন। তাঁর বিশ্বাস ছিল, ঈশ্বরই তাঁকে পথ দেখাবেন।

লকডাউনে সকলে যখন তাঁদের পরিবারের কাছাকাছি ছিলেন, তখন তাঁকে ফেলে স্বামীর অন্য শহরে চলে যাওয়া মেনে নিতে পারেননি।

 স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে অন্য শহরে চলে যাওয়ার কথা স্বীকার করেননি রাজীব। তবে সে সময় তাঁরা দু’জনেই ইনস্টাগ্রাম থেকে নিজেদের ছবি মুছে ফেলেছিলেন।

চারু বলেছিলেন, যদি অন্ধকার পথের অন্য প্রান্তে আলো থাকে, তবে তিনি সেটা নিশ্চয়ই দেখতে পাবেন।

গোয়ায় রাজীবের সঙ্গে সাম্প্রতিক ছুটি কাটানোর ছবি দেখে অনুরাগীদের আশা, সেই আলোর দিশা তাঁরা দু’জনেই পেয়েছেন।

গোয়ায় যাওয়ার আগে স্বামী রাজীবের সঙ্গে আলিঙ্গনাবদ্ধ অবস্থায় ছবি নেট মাধ্যমে প্রকাশ করেছিলেন চারু। সে সময়ই নেটাগরিকরা অনুমান করেছিলেন যে দু’জনের সম্পর্ক আবার জোড়া লেগেছে। এ বার গোয়ায় তাঁদের অন্তরঙ্গ অবসরের ছবি সেই ধারণাকেই আরও মজবুত করল।