ঠিকই পড়ছেন। দেব-রুক্মিণীর বিয়েরই শুটিং। আরও নির্দিষ্ট করে বললে বলা যায় ‘রাজা-রানি’র বিয়ের শুটিং।

শুটিং যখন, বোঝাই যাচ্ছে, এ গল্প রিয়েল নয়, রিল লাইফের। কিন্তু কোন ছবির জন্য দেব-রুক্মিণীর বিয়ের দৃশ্যের শুটিং হবে?

দেব এবং পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় এখন টলিউডে নতুন জুটি। আর এই জুটিই সদ্য তাঁদের পরের ছবির ঘোষণা করলেন। ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’ নিয়ে প্রথম অনস্ক্রিন রূপকথায় হাতেখড়ি হতে চলেছে তাঁদের।

এই ছবির হবুচন্দ্র রাজার ভূমিকায় অভিনয় করবেন দেব। তাঁর রানির ভূমিকায় দেখা যাবে রুক্মিণী মৈত্রকে। অনিকেত বললেন, ‘‘দেবকে একজন ভালমানুষ রাজা হিসেবে দেখবেন দর্শক। রুক্মিণী তার সুন্দরী রানি। ওদের বিয়ে দিয়েই গল্পটা শুরু হবে।’’

আরও পড়ুন, বিয়ের পরের জীবনটা এনজয় করছি, বলছেন শুভশ্রী

এ ছবির গল্প কেমন? পরিচালক জানালেন, দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদারের ‘সরকার মশাইয়ের থলে’ আর ‘হবুচন্দ্র রাজাগবুচন্দ্র মন্ত্রী’ এই দুটো গল্প থেকে নিয়ে স্ক্রিপ্ট করা হয়েছে। এ ছবির মন্ত্রী রাজার বকলমে দেশ শাসন করে। দেশটা যেন উল্টো রাজার দেশ। যেখানে মুড়ি, মিছরির দাম এক। অদ্ভুত বেশ কিছু জিনিস রয়েছে। বিচার ব্যবস্থাও অদ্ভুত। ‘‘মজার গল্প। হাতি, ঘোড়া, রাজসভা, জাদুকর, রাজার পারিষদ থাকবে। বাচ্চাদের জন্য দারুণ এন্টারটেনমেন্ট। ‘হীরক রাজা’, ‘গুপি গাইন বাঘা বাইন’-এর পরে আর রূপকথা সে ভাবে হয়নি। এটা একরকম রূপকথায় ফিরে আসা’’ বললেন তিনি।

আরও পড়ুন, ভিন্ন ভাবনার রসদ দিচ্ছে ‘ধানবাদ ব্লুজ’-এর ট্রেলার

২০১৯-এর মে মাসে এ ছবির শুটিং শুরু হবে। ‘বাহুবলী’র সেটে শুট করার কথা ভেবেছেন অনিকেত। তিনি শেয়ার করলেন, ‘‘বাহুবলীর সেটের কথা ভেবেছি, কারণ ওখানে হলে ওই গ্র্যাঞ্জারটা আনতে পারব। রাজা দেব, রানি রুক্মিণী, কিন্তু মন্ত্রী গবুচন্দ্রের খোঁজ এখনও চলছে। এত আগে থেকে এই ছবিটার কথাবললাম, তার কারণ অ্যানাউন্স করলেই তো অনেকের ছবি করার ইচ্ছে হয়। তারা সময় পাবেন আর কি… (হাসি)।’’

(সিনেমার প্রথম ঝলক থেকে টাটকা ফিল্ম সমালোচনা - রুপোলি পর্দার বাছাই করা বাংলা খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগ।)