Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

'আমার রান্না অ্যান্ড্রু খুব পছন্দ করে'

কেরিয়ার এবং ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুললেন ইলিয়ানা ডি’ক্রুজকেরিয়ার এবং ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুললেন ইলিয়ানা ডি’ক্রুজ

ইলিয়ানা

ইলিয়ানা

শ্রাবন্তী চক্রবর্তী
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৩ মার্চ ২০১৮ ০০:২১
Share: Save:

ইলিয়ানা ডি’ক্রুজের ব্যক্তিগত জীবন বোধহয় বেশি আলোচিত, যতটা না তাঁর অভিনীত ছবি। গত ক্রিসমাসে ইলিয়ানা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিভ-ইন পার্টনার অ্যান্ড্রু নিবনকে ‘হাজব্যান্ড’ আখ্যা দিয়েছিলেন। তার পর থেকেই জল্পনার শুরু। সাক্ষাৎকারের শুরুতেই উঠে এল তাঁর পোস্টের কথা। হেসে বললেন, ‘‘মুখে বলব না বলেই তো ইনস্টাতে লিখি। এই মুহূর্তে আমি আমার ব্যক্তিগত এবং পেশাদার জীবন নিয়ে খুব খুশি। এই দুটো ক্ষেত্রেই সামঞ্জস্য রাখা এক জন অভিনেতার কাছে কঠিন এবং জরুরিও। আমার কাছে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কাজের ফাঁকে এক মাসের ছুটি নিয়ে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে চলে যাই। অনেকেই বলেন, এতে আমার কাজের ক্ষতি হয়। কিন্তু ২০ বছর পর যখন পিছন ফিরে তাকাব, তখন যেন আমাকে আফসোস করতে না হয়। আর হ্যাঁ, অ্যান্ড্রু আমার জীবন আনন্দে ভরিয়ে দিয়েছে।’’ তবে সোশ্যাল নেটওয়র্কিং প্ল্যাটফর্মে ইলিয়ানা কিন্তু কয়েক বার ট্রোলডও হয়েছেন। এ ব্যাপারে নায়িকার সোজাসাপ্টা কথা, ‘‘আমার কেন ভারতীয় বয়ফ্রেন্ড নেই, তার জন্যও ট্রোলড হতে হয়! এদের আমি কী জবাব দেব? তবে হ্যাঁ, ব্লক বলে একটা বাটন আছে, বেশি বিরক্ত করলে সেটা প্রেস করে দিই।’’

বয়ফ্রেন্ড অ্যান্ড্রুর প্রসঙ্গ উঠলে এই অভিনেত্রী কিন্তু ‘নো পার্সোনাল কোশ্চেন’-এর ট্যাগ ঝুলিয়ে দেন না। বরং বয়ফ্রেন্ডের কোন গুণ তাঁকে আকর্ষণ করে জানতে চাইলে, হেসে বললেন, ‘‘এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গেলে আমি ব্লাশ করবই! অ্যান্ড্রু বলে, আমি সামান্য জিনিসও অসামান্য ভাবে দেখি। আমার রান্না ওর খুব পছন্দ। বিশেষ করে ডাল ও ঢ্যাঁড়শ। আর ওর সততা আমার ভাল লাগে। অ্যান্ড্রু আমাকে বড় বড় চিঠি লেখে। ও আমার জীবনে আসার পর নিজের মধ্যে অদ্ভুত শান্তি অনুভব করি। অনেক বেশি পরিণত লাগে নিজেকে। হাসিখুশি থাকতে ভাল লাগে।’’ দিন কয়েকের মধ্যেই মুক্তি পাবে ইলিয়ানার নতুন ছবি ‘রেড’। সেখানে অজয় দেবগণের বিপরীতে রয়েছেন তিনি। আর ইলিয়ানার ছবি তাঁর ভিনদেশি বয়ফ্রেন্ড অ্যান্ড্রুও দেখেন। ছবিতে ইলিয়ানাকে শাড়িতে দেখে তিনি মুগ্ধও। ‘‘ও বলেছে, আমাকে ভীষণ হট লাগছে! শাড়ি অলওয়েজ ওয়র্কস,’’ মিষ্টি হেসে বললেন নায়িকা।

আরও পড়ুন: 'বাবা বলেই ছেলের জন্য চরিত্র লিখব?'

অবশ্য ইলিয়ানা নিজেও শাড়ি পরতে খুব পছন্দ করেন। ‘রেড’-এর টাইম ফ্রেম আশির দশক। ‘‘আমাকে রেফারেন্স দেওয়া হয়েছিল অভিনেত্রী রেখার। রেখাজির মতো আমার লুকও ক্লাসিক ইন্ডিয়ান রাখা হয়েছে। আসলে শাড়ির আলাদা চার্ম আছে আর সেটা সব সময়ই থাকবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE