• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ঐতিহাসিক বায়োপিকে এ বার যুগলে অজয়-কাজল, প্রকাশিত ছবির লুক

main
ঐতিহাসিক পটভূমিকার ছবিতে এ বার অজয় ও কাজল পর্দাতেও স্বামী-স্ত্রী। ছবি:সোশ্যাল মিডিয়া।

Advertisement

ফের নতুন রূপে কাজল। এ বার তিনি সাবিত্রীবাঈ মালুসরে। আসন্ন ঐতিহাসিক ছবিতে তাঁর লুক প্রকাশিত হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের আগামী ছবির পোস্টার শেয়ার করেছেন কাজল। সেখানেই খাঁটি মরাঠি সাজে দেখা যাচ্ছে তনুজাকন্যাকে। ছবির নাম ‘তানাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিয়র’।

ঐতিহাসিক পটভূমিকার এই ছবিতে অজয়কাজল পর্দাতেও স্বামী-স্ত্রী।

মূল চরিত্র, ছত্রপতি শিবাজির বীর সেনাপতি তানাজি মালুসরের ভূমিকায় দেখা যাবে অজয় দেবগনকে। তাঁর স্ত্রী সাবিত্রীর চরিত্রে রূপদান করছেন কাজল।

আরও পড়ুন: ব্যর্থ প্রেম থেকে ভাঙা দাম্পত্য, ঘাত প্রতিঘাতে হারিয়েই গেলেন ‘পরদেশ’-এর মহিমা

মরাঠি সেনাপতি তানাজির ভূমিকায় অজয় দেবগন। ছবি:সোশ্যাল মিডিয়া।

তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবির পোস্টার শেয়ার করেছেন। সঙ্গে লিখেছেন, ‘আমি আপনাকে পরাজিত হতে দেব না’। অর্ধাঙ্গিনীর পোস্টের সঙ্গে মিলিয়ে পোস্ট করেছেন অজয়ও। নিজের পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘সাবিত্রী মালুসরে— তানাজির সাহসের ভরসা এবং ওঁর শক্তি’।

সাবিত্রীবাঈয়ের ভূমিকায় কাজল। ছবি:সোশ্যাল মিডিয়া

ইতিহাসের পাতা থেকে বায়োপিকে সেলুলয়েডবন্দি হচ্ছেন তানাজি। তিনি ছিলেন মরাঠা সাম্রাজ্যের অন্যতম মূল কাণ্ডারি। শিবাজির নির্দেশে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সিংহগড় অভিযানের। পুণের এই গুরুত্বপূর্ণ দুর্গ ১৬৭০ খ্রিস্টাব্দে মুঘলদের দখলে ছিল। গড়ের দায়িত্বে ছিলেন রাজপুত আধিকারিক উদয়ভান রাঠৌর। তাঁকে নিযুক্ত করেছিলেন মুঘল সেনাপতি প্রথম জয় সিংহ।

আরও পড়ুন: বন্ধ হল ধারাবাহিক ‘নজর’, কী করছেন সম্পূর্ণা লাহিড়ি?

রাজপুত-মুঘলের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে উদ্ধার হয় সিংহগড়। মুঘল অধিকার থেকে হাতবদল হয়ে দুর্গ আসে মরাঠাদের আধিপত্যে। কিন্তু উদয়ভানের সঙ্গে সম্মুখসমরে প্রাণ হারান তানাজি। সেই যুদ্ধ ফের জীবন্ত হতে চলেছে বড় পর্দায়। ছবিতে উদয়ভানের চরিত্রে অভিনয় করছেন সইফ আলি খান।

তানাজির প্রতিদ্বন্দ্বী উদয়ভানের চরিত্রে সইফ আলি খান। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া।

অজয় দেবগনের প্রযোজনায় এই বায়োপিকের পরিচালক ওম রাউত। ছবির মুক্তি আগামী ১০ জানুয়ারি।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন