×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

বন্ধ হয়ে গেল কপূর পরিবারের সত্তর বছরের গণেশ পুজো!

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ৩০ অগস্ট ২০১৯ ১৫:২৫
কপূর পরিবারের বিখ্যাত গণেশ পুজোয় সামিল রনবীর কপূর।

কপূর পরিবারের বিখ্যাত গণেশ পুজোয় সামিল রনবীর কপূর।

গণেশ পুজোর বাকি আর মাত্র দু’দিন। মহানগরী মুম্বইয়ে জোরকদমে চলছে তারই প্রস্তুতি। কিন্তু এই প্রথম বার কপূর পরিবারে উৎসবের মেজাজ একেবারে ফিকে। কেন জানেন? এ বছর থেকেই পাকাপাকি ভাবে বন্ধ হয়ে গেল কপূর পরিবারের ঐতিহ্যশালী গণেশপুজো। কিন্তু কেন বন্ধ হল কপূর পরিবারের ওই জনপ্রিয় অনুষ্ঠান?

রাজ কপূর প্রতিষ্ঠিত আরকে স্টুডিওতে প্রায় ৭০ বছর ধরে হোলি, গণেশ পুজো ইত্যাদি অনুষ্ঠানের রাজকীয় আয়োজন হয়ে আসছিল। কিন্তু, মাস কয়েক আগেই এক রিয়েল এস্টেট সংস্থার কাছে সেই স্টুডিয়ো বেচে দেন কপূর পরিবার। পরিবারের তরফে জানানো হয়েছিল,যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ করার জন্য টাকার অভাবেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। আরকে বেচে দেওয়ায় জায়গার অভাবেই পুজো না করার সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে তাদের, এমনটাই দাবি কপূর পরিবারের।

আরও পড়ুন-মানসিক অবসাদে মুম্বইয়ে আত্মঘাতী উঠতি অভিনেত্রী

Advertisement

আরও পড়ুন- ‘শরৎ-সুনীল-শক্তি দিনের শেষে রবীন্দ্রনাথে ফিরেছেন’

সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাজ কপূরের ছেলে রণধীর কপূর বলেন, “আরকে স্টুডিয়োই নেই, আর গণেশ পুজো করে কী করব? কোথায়ই বা করব? বাবা ৭০ বছর আগে ওই পুজো চালু করেছিলেন। কিন্তু এখনওই অনুষ্ঠানকে চালু রাখার মতো জায়গা নেই আমাদের। আমরা ‘বাপ্পা’-কে ভালবাসি। তাঁর প্রতি বিশ্বাসও অটুট। কিন্তু তা সত্ত্বেও ওই পুজো চালু রাখা আমাদের পক্ষে আর সম্ভব নয়।”

কপূর পরিবারের ‘গণেশ চতুর্থী’ শুধু মুম্বইতেই নয়। সারা ভারতেও বেশ পরিচিত। পরিবারের লোকজন ছাড়া সাধারণকেও অংশ নিতে দেখা যেত ওই পুজোতে। রণধীর, রাজীব, ঋষি— এই তিন ভাই সপরিবার সামিল হতেন গণপতির আরাধনায়।

Advertisement