বহুল চর্চিত ছবি ‘কবীর সিং’ দেখেননি করিনা কপূর। কিন্তু প্রাক্তন প্রেমিক শাহিদ কপূর অভিনীত ‘কবীর সিং’-এর মতো চরিত্র একেবারেই না পসন্দ নবাব পত্নীর। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এসে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। করিনা বলেন, “আমি ব্যক্তিগত ভাবে এ রকম একটি চরিত্র একেবারেই পছন্দ করি না। কারণ আমি নিজে এ রকম নই।”

ফিল্মের বিভিন্ন বিতর্কিত বিষয় নিয়ে যাঁরা সোচ্চার হয়েছিলেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন করিনা।

কিন্তু বক্স অফিসে তো ওই ছবি সুপার হিট। তবে? করিনার বক্তব্য, “কিছু মানুষ রয়েছেন (সংখ্যায় অনেকটাই বেশি) যাঁরা ছবিটির সঙ্গে নিজেকে রিলেট করতে পেরেছিলেন। কারণ মানুষ গিয়েছেন ছবিটি দেখতে। তাঁরা যা দেখতে চান তাই দেখতে পেয়েছেন।”

আরও পড়ুন- পুজোর ছুটিতে কেনিয়ায় রাজ-শুভশ্রী, দেখে নিন ফোটো অ্যালবাম

সন্দীপ ভাঙ্গা পরিচালিত শাহিদ কপূর এবং কিয়ারা আডবাণী অভিনীত ‘কবির সিং’ মুক্তির পর থেকেই নানা বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিল। গল্পের নায়ক কবীর প্রেমিকাকে পাওয়ার জন্য যে যে পন্থা নেয়, তা মোটেও ভাল চোখে দেখেননি নেটিজেনদের একাংশ। গাঁজা-মদ বা সিগারেটকে যে ভাবে ব্যর্থ প্রেমিকের হাতিয়ার হিসেবে দেখানো হয়েছিল, তা বিস্মিত করেছিল অনেককে।

গায়িকা সোনা মহাপাত্র তাঁর টুইটারে এরকম একটি ডার্ক হিরোর চরিত্র বাছার জন্য তীব্র ভাষায় বিঁধেছিলেন শাহিদ কপূরকে। ছবিটিকে 'মিসোজিনিস্ট' ( নারীবিদ্বেষী) আখ্যা দিয়ে সোনা বলেছিলেন, অভিনেতা হিসেবে শাহিদের কি কোনও সামাজিক দায়িত্ব নেই?  গ্লাস ভাঙার জন্য পরিচারিকার দিকে তেড়ে যাওয়া, ছুরি দেখিয়ে পোশাক খোলানোর চেষ্টা, যখন ইচ্ছে যৌন-তাড়নায় ‘ঝাঁপিয়ে পড়া’ ! দরকার ছিল এসবের! 

এরই মধ্যে আগুনে ঘি ঢেলেছিল পরিচালকের মন্তব্য। পরিচালক সন্দীপ বলেছিলেন, “সম্পর্কে চড় মারার অধিকার না থাকলে সেটা প্রেমই নয়!” যদিও এ সবেই মধ্যেও বক্স অফিসে ৩০০ কোটির বেশি ব্যবসা করেছিল ওই ছবি।

আরও পড়ুন- মুভি রিভিউ 'দ্য স্কাই ইজ পিঙ্ক': প্রিয়ঙ্কা লিখলেন গোলাপি আকাশ তৈরির গল্প