• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দাদা-ভাইয়ের সম্পর্কের মোড় ঘুরিয়ে দিল করোনা

main
ছবির একটি দৃশ্য।

দাদা দেশে, ভাই বিদেশে। মাঝখানে পরত জমেছে একগুচ্ছ অভিমানের। কতকাল কথা হয়নি তাঁদের। দেখা তো দূরের কথা। অনেক বার ভেবেছে দু’জনেই অভিমানের আস্তারণ সরিয়ে কথা বলি, দেখা করি… হয়ে ওঠেনি।

এক মহাদেশ থেকে অন্য মহাদেশে যখন মারণ রোগ ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছিল দাদা’কে বড় মনে পড়ছিল ভাইয়ের। মনে পড়ছিল ফেলে আসা বাড়ির উঠোন, রেললাইন আর ‘অ্যাপেল ট্রি’। স্মৃতির পাতায় ডুব দিয়ে দাদাকে ভয়েস মেসেজ পাঠাতে থাকে সে। প্রৌঢ় অভিমানী দাদাও স্মৃতিকাতর। আর তার পরেই একটা মস্ত বড় চমক। চমক না বলে বোধহয় ‘ঝটকা’ বলাই ভাল। কী ঝটকা? তা উহ্যই থাক।

 লকডাউন  পিরিয়ডে উইনডোজের বানানো নতুন শর্টফিল্মটি যেন ইমোশনাল রোলারকোস্টার। ছবির নাম ‘অ্যাপল ট্রি’। একটা আপেল গাছ কে কেন্দ্র করেও এত সুন্দর গল্প বলা যায় তবে? ছবির গল্প লিখেছেন জিনিয়া সেন। অভিনয়ে ধ্রুবজ্যোতি নন্দী এবং অনুপা ঠাকুরতা। ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোরে রয়েছেন প্রবুদ্ধ বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্পাদনার দায়িত্ব সামলেছেন মলয় লাহা।

আরও পড়ুন- ‘শামুক’ আর ঘরবন্দি মানুষের মধ্যে মিল খুঁজে দিলেন অপরাজিতা

দেখুন সেই শর্টফিল্ম

ছবির প্রথমেই ‘সত্য ঘটনা অবলম্বনে’ লেখাটি মন খারাপের গন্ধ বয়ে আনে। প্রশ্ন জাগে, পরিবারের গুরুত্ব কী এবং কতটা লকডাউন না হলে  আদৌ বুঝতে পারতাম আমরা? স্পষ্ট উচ্চারণে ভয়েসওভার, মেদহীন এই ছোট ছবিটি উইন্ডোজের লকডাউন শর্টস সিরিজের এখন পর্যন্ত সেরা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন