Advertisement
২০ মে ২০২৪

ব্যান্ডানার বন্ধনে

এক টুকরো কাপড় মাথায় বেঁধে স্টাইলিশ। বছরের ট্রেন্ড। লিখছেন সংযুক্তা বসু।চুল নিয়ে নাজেহাল? কাটতেও ইচ্ছে করে না। আবার বাঁধতেও ইচ্ছে করে না। কিন্তু যদি বেঁধে ফেলা যায়? এক টুকরো কাপড়। তাতেই পাল্টে যাবে মুখের শোভা। চুলের স্টাইলও। আর তারই নাম ব্যান্ডানা। মাথায় ব্যান্ডানা বেঁধে স্টাইলিশ সাজে সাজলে ঢেকে যেতে পারে চুলের খুঁত। কেবল মাত্র একটুকরো কাপড় দিয়ে মাথা ঢাকলেই বদলে যাবে আপনার লুক। আমেরিকা-ইউরোপ কাঁপিয়ে ব্যান্ডানার ফ্যাশন এখন ভারতেও।

শেষ আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০১৫ ০১:০০
Share: Save:

চুল নিয়ে নাজেহাল? কাটতেও ইচ্ছে করে না। আবার বাঁধতেও ইচ্ছে করে না। কিন্তু যদি বেঁধে ফেলা যায়?

এক টুকরো কাপড়। তাতেই পাল্টে যাবে মুখের শোভা। চুলের স্টাইলও। আর তারই নাম ব্যান্ডানা।

মাথায় ব্যান্ডানা বেঁধে স্টাইলিশ সাজে সাজলে ঢেকে যেতে পারে চুলের খুঁত। কেবল মাত্র একটুকরো কাপড় দিয়ে মাথা ঢাকলেই বদলে যাবে আপনার লুক।

আমেরিকা-ইউরোপ কাঁপিয়ে ব্যান্ডানার ফ্যাশন এখন ভারতেও।

হৃতিক রোশন থেকে সলমন খান, প্রীতি জিন্টা থেকে সোনাক্ষী সিংহ সকলেই ব্যবহার করতে ভালবাসেন এই কোমল শিরস্ত্রাণ, যা কিনা তৈরি হতে পারে সিল্ক, লিনেন, সুতির স্কার্ফ দিয়ে।

শীতের কুয়াশায় মাথা ঢাকতে কিংবা গরমে রোদের তাপ এড়াতে ব্যান্ডানার ব্যবহারের সঙ্গে জুড়ে গিয়েছে আধুনিক ফ্যাশন। রক ব্যান্ডের দলের গায়ক-মিউজিশিয়ানেরা হামেশাই পরে থাকেন ব্যান্ডানা। ইউরোপে রেনেসাঁর সময় রুমালের ফাঁস দিয়ে অথবা স্কার্ফে গিঁট দিয়ে তৈরি ব্যান্ডানা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। জলদস্যুদের মাথায় তাদের পেশার স্বাক্ষর বহন করেছে দীর্ঘদিন ব্যান্ডানা। আস্তে আস্তে হলিউডের ছবিতে জায়গা করে নিয়েছে মাথা ঢাকা এই ফ্যাশন।

যে পোশাকের সঙ্গেই ব্যান্ডানা ব্যবহার করা হোক তা ফ্যাশনেবলদের ভেতরকার স্টাইলবোধকেই বের করে আনে। কেবল এক চিলতে স্কার্ফের বাঁধনে চেহারা হয়ে ওঠে আর দশজনের থেকে আলাদা।

ফ্যাশন ডিজাইনার প্রণয় বৈদ্য বলছেন, “আমাদের মতো গ্রীষ্মপ্রধান দেশে ব্যান্ডেনা যেমন রোদ থেকে মাথাকে বাঁচায় তেমন স্টাইলও হয়। ষাটের দশকে ব্যান্ডানা খুব চলত। সেটাই আবার ফিরে এসেছে ২০১৫-তে নতুন করে।” অন্য দিকে ফ্যাশন ডিজাইনার শুচিস্মিতা দাশগুপ্ত বলছেন, “চুল নিয়ে জেন ওয়াইয়ের নানা সমস্যা। রুক্ষ, অগোছালো চুল ঢেকে রাখতে ব্যান্ডানার আবরণের বিকল্প নেই। ফ্যাশনও হল, আবার চুলের সমস্যাও এড়ানো গেল।”

গায়ক রূপম ইসলাম ‘ফসিলস’ ব্যান্ডের শুরুর দিকে মাথায় বাঁধতেন কখনও লাল ফেট্টি কখনও বা ব্যান্ডানা। বললেন, “সেই সময় চুলটা বড় ছিল। অনুষ্ঠান করার সময় চুলের ভার যাতে সামাল দেওয়া যায় সেইজন্যই ব্যান্ডানা বাঁধতাম।”

আইটি ডিজাইনার অর্ক সেন সম্প্রতি চুল বড় করছেন। চুলের এমন অবস্থা না যাচ্ছে বাঁধা, না যাচ্ছে খোলা। তাই তিনি নিউ মার্কেট থেকে কিনে নিয়েছেন কয়েক খানা রঙিন ব্যান্ডানা। বললেন, “চোঙার মতো দেখতে সিল্কের এই সব ব্যান্ডানার দাম আড়াইশো থেকে সাড়ে তিনশো টাকার মধ্যে।”

একটা ধারণা আছে ওয়েস্টার্ন ক্যাজুয়াল ওয়্যারের সঙ্গেই ব্যান্ডানা মানায় ভাল। কিন্তু এই ধারণা এখন তামাদি। ইচ্ছে করলে শাড়ির সাজেও যে ব্যান্ডানা পরা যায় তা তো কবেই প্রমাণ করেছেন বিবি রাসেল। তিনিই প্রমাণ করেছেন গামছা দিয়েও তৈরি হতে পারে ব্যান্ডানা। দেশি কায়দায় আপনিও ইচ্ছে করলে গামছার ব্যান্ডানা পরতে পারেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

ananda plus bandana sanjukta basu
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE