×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২১ জুন ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

ভোজপুরি সিনেমার ড্রিম গার্ল এই বাঙালি তরুণী, জানেন তো?

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৫ জানুয়ারি ২০১৯ ০৯:৪০
রিঙ্কু ঘোষ। নামটা কি চেনা চেনা লাগছে? আদ্যন্ত বাঙালি এই তরুণী কিন্তু দেশের একটা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সুপারস্টার।

এই নায়িকাকে ভোজপুরি সিনেমার ড্রিমগার্লও বলা হয়।
Advertisement
কলকাতায় জন্মাবার পরই বাবার বদলির চাকরি সূত্রে চলে যান কেরলে। নৌ বাহিনীতে চাকুরিরত বাবার চাকরির কারণেই বড় হয়েছেন কেরলেই।

প্রথম সিনেমা ‘সুহাগন বানা দা সজনা হামার’স সুপারহিট হওয়ায় তাঁকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি।
Advertisement
ভোজপুরি সিনেমা ছাড়াও তামিল ও তেলুগু ছবিতেও অভিনয় করেছেন তিনি।

রিঙ্কু ঘোষের একটি ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে পড়েছিল, ছবিতে দেখা গিয়েছিল তাঁর শ্লীলতাহানি করা হচ্ছে, তা নিয়ে বিতর্কও হয়। এক বসপা নেতার নাম জড়িয়ে যায় সেই বিতর্কে। পরে জানা যায় সেটি ফেক নিউজ।

কিন্তু পরবর্তীতে জানা যায়, সেটি ‘অউরত খিলনা নেহি’-নামে ছবির একটি দৃশ্য। ছবিতে দলিত তরুণীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন রিঙ্কু। সেই ছবিটিই ‘ফেক নিউজ’ হিসাবে পোস্ট হয়ে কয়েক হাজার বার শেয়ার হয়েছিল।

কোয়ি হ্যায় ও রং নাম্বার ছবি দুটির জন্য রিঙ্কুর অভিনয় নিয়ে সমালোচকরাও প্রশংসা করেছিলেন। বেশ কিছু টিভি শো-তেও অংশগ্রহণ করেছেন রিঙ্কু।

অভিনয় করেছেন অজয় দেবগণের সঙ্গে ‘হিম্মতওয়ালা’ ছবিতেও।

‘জয় মা দুর্গা’ নামে একটি বলিউড ছবিও করেছেন তিনি। ১৯৯৬ সালে ‘মিস মুম্বই’ হওয়ার পরই বিনোদন জগতে প্রবেশ করেন রিঙ্কু।

রিঙ্কু বিয়েও করেছেন এক বাঙালিকেই। তাঁর স্বামী ওমানে কর্মরত।

খেলায় বেশ উৎসাহী রিঙ্কু। সেলেব্রিটি ক্রিকেট লিগে ভোজপুরী ক্রিকেট টিম ‘ভোজপুরী দাবাং’-এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডারও তিনি।

পারিশ্রমিকের দিক থেকেও রিঙ্কু ভোজপুরী ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম ‘হায়েস্ট পেইড হিরোইন’। প্রতি ছবিতে সাত লক্ষের কাছাকাছি পারিশ্রমিক পান তিনি।