Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৩ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

বিনোদন

আপনি সিঙ্গল মাদার? এই বলি তারকাদের কথা অবশ্যই পড়ুন

নিজস্ব প্রতিবেদন
২০ জুন ২০১৮ ১০:১৪
নিজের শর্তে বেঁচে থাকার পাসওয়ার্ড তাঁদের হাতের মুঠোয়। সিনে পর্দায় লক্ষ লক্ষ দর্শকের মন জিতে তাঁরা সফলতার শিখর ছুঁয়েছেন। কিন্তু, সন্তানদের কাছে তাঁরা শুধুই এক জন মা। নানা প্রতিবন্ধকতার বেড়াজাল পেরিয়ে সিঙ্গল মাদারেরা আমজনতার কাছে খাড়া করেছেন এক নতুন মাইলস্টোন।

সুস্মিতা সেন: সিঙ্গল মাদারের সংজ্ঞা বাঙালি জাতিকে নতুন ভাবে পড়তে শিখিয়েছেন তিনি। রক্ষণশীল সমাজকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাত্র ২৫ বছর বয়সে প্রথম কন্যাসন্তান দত্তক নেন সুস্মিতা। কেরিয়ারের তোয়াক্কা না করেই ২০১০ সালে ফের দ্বিতীয় সন্তান দত্তক নিয়েছেন তিনি। চল্লিশ ছুঁইছুঁই নায়িকা এখন রেনে ও আলিশা দুই মেয়ের গর্বিত মা।
Advertisement
কনিকা কপূর: শিশুশিল্পী হিসেবে অল ইন্ডিয়া রেডিয়োতে প্রথম কাজ শুরু করেছিলেন কনিকা। ১৯ বছর বয়সে বিয়ে করেন প্রবাসী ব্যবসায়ী রাজ চন্দককে। ২০১২ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ততদিনে কনিকা তিন সন্তানের মা। জীবনে অনেক ঝড় এসেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সব বাধাকে জয় করে ‘বেবি ডল’ গায়িকার খ্যাতি এখন পৌঁছে গিয়েছে বাকিংহাম প্যালেসেও।

করিশ্মা কপূর: ২০১৪ সালে ব্যবসায়ী সঞ্জয় কপূরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পর থেকে দুই সন্তানকে একাই বড় করছেন করিশ্মা। ১৩ বছরের দাম্পত্যে ইতি টেনে সম্প্রতি সঞ্জয় বিয়ে করেছেন এক উঠতি মডেলকে। মাঝে করিশ্মার সঙ্গে ব্যবসায়ী সন্দীপ তোশনিওয়ালের সম্পর্ক নিয়েও গুজব রটেছিল। শোনা গিয়েছে, মেয়ে সামাইরা ও ছেলে কিয়ানকে একাই বড় করতে চান নায়িকা।
Advertisement
নীনা গুপ্তা: ১৯৮৯ সালে ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসের সঙ্গে নীনার সম্পর্ক নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল গোটা দেশ। নায়িকা জানিয়েছিলেন, রক্ষণশীল সমাজের কম চোখ রাঙানি সহ্য করতে হয়নি তাঁকে। কিন্তু নিজের সিদ্ধান্তে বরাবরই অটল ছিলেন তিনি। বর্তমানে সেলিব্রিটি ফ্যাশন ডিজাইনার মাসাবা গুপ্তার গর্বিত মা নীনা সমাজের কাছে সত্যিই আদর্শ স্বরূপ।

পূজা বেদী: সিনে পর্দা তো বটেই কমার্শিয়াল বিজ্ঞাপন এবং মডেলিংয়েও হাত পাকিয়েছেন পূজা। ২০০৩ সালে ব্যবসায়ী গুয়েত্তা ইব্রাহিমের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর মেয়ে আলিয়া এবং ছেলে ওমরকে একাই মানুষ করেছেন পূজা। সন্তানেরাই তাঁর জীবনের আদর্শ বলে জানিয়েছেন নায়িকা।

সুজান খান: ২০১৪ সালে বিবাহবিচ্ছেদ হয় হৃতিক-সুজানের। বাল্যপ্রেমের এ হেন সমাপ্তিতে বেশ অবাকই হয়েছিল সিনে মহল। ডিভোর্সের পর এখন দুই ছেলেকে একাই সামলাচ্ছেন সুজান। তবে, ডিভোর্সের পরও দেখা গিয়েছে সুজান-হৃতিকের বন্ধুত্ব বদলায়নি এতটুকু। দুই ছেলেকে নিয়ে হঠাত্ ডিনারের প্ল্যান, সিনেমা দেখা বা বিদেশ ভ্রমণ— সবই চলে নিয়ম মেনেই।

অমৃতা সিংহ: ছোটে নবাবের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর মেয়ে সারা এবং ছেলে ইব্রাহিমকে নিয়ে একাই সংসার পেতেছেন অমৃতা। খুব তাড়াতাড়ি বলিউডে এন্ট্রি নিতে চলেছেন সারা। ইব্রাহিমের পর্দায় মুখ দেখাবেন কি না সেই নিয়েও চলছে জল্পনা। ১৩ বছরের দাম্পত্য বেশ তিক্তকার সঙ্গেই শেষ হয়। যে কোনও বিষয়ে অমৃতার অতিরিক্ত প্রভাব নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন সইফ।

সারিকা: দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসনের সঙ্গে একসময় লিভ ইন সম্পর্কে ছিলেন সারিকা। পরে, তাঁকে বিয়ে করেন। কিন্তু নানা কারণে ২০০৪ সালে সেই বিয়ে ভেঙে যায়। বর্তমানে দুই মেয়ে শ্রুতি এবং অক্ষরাকে নিয়েই সংসার সারিকার।

মালাইকা অরোরা: ১৮ বছরের দাম্পত্যের শেষে এখনও নাকি খুব ভাল বন্ধু মালাইকা এবং আরবাজ। তবে দুই ছেলেকে নিয়ে মালাইকা এখন একাই থাকেন। গ্ল্যামার দুনিয়ায় থেকেও ছেলেদের প্রতিও তিনি সমান যত্নশীল বলে জানিয়েছেন নায়িকা।