এর আগে ‘সরফরোশ’ ছবি পাকিস্তানের সঙ্গে নাসিরুদ্দিন শাহর এক যোগাযোগ তুলে ধরেছিল রুপোলি পর্দায়। এ বার অবশ্য ঘটনাটা বাস্তবের। লাহৌর চললেন নাসিরুদ্দিন! প্রতিবেশি দেশের এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে চলেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা।

পাকিস্তানের স্বনামধন্য কবি ফেজ আহমেদ ফেজ— নোবেল পুরস্কারের জন্য চার বার মনোনীত হয়েছিলেন উর্দু কবিতা লেখনীর জন্য। পঞ্জাবিতেও তাঁর দক্ষতা ছিল ভাষাতীত। ১৯৬২ সালে সোভিয়েত যুক্তরাজ্য থেকে কবিকে ‘লেনিন শান্তি পুরস্কার’-এ ভূষিত করা হয় মার্ক্সবাদী ও ‘প্রোগ্রেসিভ রাইটার্স মুভমেন্ট’-এর একজন সফল কর্মী হওয়ার জন্য। চলতি বছরের শেষের দিকে উর্দু কবিকে স্মরণ করে তিন দিনের এক অনুষ্ঠান আয়োজিত হবে লাহৌরে। ‘ফেজ আহমেদ ফেজ ফেস্টিভ্যাল’ নামে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করছেন কবি-কন্যা মোনিজা হাশমি। ‘ফেজ ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট’-এর তরফ থেকে মোনিজা জানিয়েছেন, ভারত ও পাকিস্তান— দু’ দেশের নামীদামী কবিরাই এই অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। এবং কাব্যপাঠের পাশাপাশি থাকবে নাট্য প্রদর্শনীও। প্রতিবেশী দেশের ওই অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে দেখা যাবে নাসিরুদ্দিন শাহকে। লাহৌরের আলহামরা আর্ট সেন্টার-এ তিন দিনে চারটি শো করবেন শাহ সাহেব, জানিয়েছেন মোনিজা।

প্রসঙ্গত, মোনিজা হাশমি নিজে পাকিস্তান টেলিভিশন জগতের খুবই পরিচিত নাম।