Advertisement
২২ জুন ২০২৪
Godhuli Alap

Raj Chakraborty: আগামী রেটিং চার্টে প্রথম পাঁচে থাকবে ‘গোধূলি আলাপ’, মিলিয়ে নেবেন: রাজ চক্রবর্তী

রাজের কথায়, ভাল গল্প, গান, নাটক, তারকার সমাবেশ, ভাল অভিনয় ধারাবাহিকের স্তম্ভ হলে ফলাফল ভাল হতে বাধ্য।

রাজ চক্রবর্তী।

রাজ চক্রবর্তী।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২২ মার্চ ২০২২ ১৫:৪৪
Share: Save:

রাজ চক্রবর্তীর নতুন মেগা ‘গোধূলি আলাপ’। প্রথম জানিয়েছিল আনন্দবাজার অনলাইন। অসম বয়সী প্রেম বাংলা বিনোদনে নতুন নয়। কেন আবার তাকেই ফেরালেন? নায়কের ভূমিকায় অভিনয়ের কথা ছিল বাবুল সুপ্রিয়র। কেন নেই তিনি? সবিস্তার আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে প্রথম মুখ খুললেন প্রযোজক


প্রশ্ন: অসমবয়সী প্রেম বড়, ছোট পর্দায় দেখানো হয়েছে, ‘গোধূলি আলাপ’-এ একই বিষয় ফিরল?

রাজ: ফিরল। কারণ, প্রেম কখনও পুরনো হয় না। তা ছাড়া, ইদানীং সব ধারাবাহিকে প্রায় একই রকমের গল্প দেখানো হচ্ছে। সেখানে এই ধরনের গল্প স্বাদ বদলাবে দর্শকদের। এই গল্প নারীশক্তির উত্থানকেও দেখাবে। চিত্রনাট্য অনুযায়ী, নোলক নিজের প্রয়োজনে নিজে শিক্ষিত হয়ে নিজের লড়াই লড়বে। প্রত্যন্ত গ্রামের এক বহুরূপী মেয়ে কী ভাবে উচ্চবর্ণ সমাজে নিজের জোরে নিজের পরিচয় তৈরি করবে সেই গল্প বলবে ধারাবাহিক। যা যে কোনও মেয়ের অনুপ্রেরণা হয়ে উঠবে। সমাজেও দৃষ্টান্ত তৈরি করবে। তাই এই বিষয় বা গল্প বাছা। আর প্রেম কখনও পুরনো হয় নাকি (হাসি)! তা সে যতই অসম হোক।

প্রশ্ন: অর্থাৎ, রাজ চক্রবর্তীর ‘সিগনেচার’ এ বার বড় পর্দা ছেড়ে ছোট পর্দায়?

রাজ: (হাসি) বলতে পারেন। চেষ্টা করেছি। এটা বলতে পারি, দর্শক একাত্ম হতে পারবেন চরিত্রগুলোর সঙ্গে। ধারাবাহিক তো এক দিনের কাজ নয়। প্রতি দিন গল্প বুনতে হয় নতুন করে। ইতিমধ্যেই প্রথম পর্ব সম্প্রচারিত হয়েছে ২১ মার্চ, সন্ধে ছ’টায়। দর্শক, চ্যানেল থেকে প্রশংসা পাচ্ছি। ধারাবাহিকের প্রচার ঝলকও যথেষ্ট সাড়া ফেলেছে দর্শকমহলে। সব মিলিয়ে মনে হচ্ছে, দর্শক ভালবাসবেন নতুন ধারাবাহিককে।

প্রশ্ন: বাস্তবে এ রকম অসম প্রেম দেখা যায়?

রাজ:কেন দেখা যাবে না! প্রেমের কোনও বয়স হয় নাকি? যে কোনও বয়সের মানুষ প্রেমে পড়তে পারেন। সমাজ আসলে নির্দিষ্ট করে দেয়, এই বয়স প্রেমের। বা প্রেমে বয়সের এই নির্দিষ্ট ফারাক থাকবে। তবে প্রেম এত মেপে হয় না। প্রেম শুধুই হাত ধরে হাঁটা নয়। ‘আমি তোমাকে ভালবাসি’ বলাও নয়। অথবা শারীরিক সম্পর্কে আবদ্ধ হওয়া নয়। প্রেম মানে দুটো মানুষের পারস্পরিক সম্মান, নির্ভরতা, ভাল-মন্দ ভাগ করে নেওয়া। এবং বন্ধুত্ব। সে সবই বলবে নতুন ধারাবাহিক।

রাজ চক্রবর্তীর নতুন মেগা ‘গোধূলি আলাপ’।

রাজ চক্রবর্তীর নতুন মেগা ‘গোধূলি আলাপ’।

প্রশ্ন: কোনও ফাঁক যাতে না থাকে তার জন্যই কি মুম্বই থেকে চিত্রনাট্যকার এনেছেন?

রাজ: এ রকম কোনও ব্যাপার নেই। এখানকার সমস্ত কাহিনী-চিত্রনাট্যকার প্রচণ্ড ব্যস্ত। তাই মুম্বই থেকে শ্বেতা ভরদ্বাজ এসেছেন। শ্বেতা এর আগে ব্লকবাস্টার হিট ধারাবাহিক ‘বোঝে না সে বোঝে না’-র চিত্রনাট্য লিখেছিলেন। আমাদের একটাই লক্ষ্য, দর্শকদের কাছে ভাল গল্প পৌঁছে দেওয়া। তাই এই পদক্ষেপ।

প্রশ্ন: ধারাবাহিকের নায়ক বাবুল সুপ্রিয়র হওয়ার কথা ছিল, বদলে গেল কেন?

রাজ: (হেসে ফেলে) বাবুল সম্প্রচারের আগের দিনেও আমায় ফোন করেছিলেন। বললেন, ‘‘শোনো না, আমি স্বপ্ন দেখেছি তোমার নতুন ধারাবাহিকে ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করছি!’’ অর্থাৎ, কাজ নিয়ে এতটাই ইতিবাচক তিনি। আমারও ভাল লাগত যদি বাবুল অভিনয় করতে পারতেন। কিন্তু পুর-নির্বাচন চলছে। ফলে, ইচ্ছে থাকলেও কাজ করতে পারলেন না। আগামী দিনে আমরা এক সঙ্গে নিশ্চয়ই কাজ করব।

প্রশ্ন: বাবুলের জায়গায় কৌশিক সেন...

রাজ: কৌশিক জাত অভিনেতা! তারকার জৌলুস রয়েছে। এই ধরনের চরিত্রে সম্ভবত অভিনয় করেননি। ছোট পর্দা থেকেও অনেক দিন দূরে। সব মিলিয়ে কৌশিক সেনকেই আমরা বেছে নিয়েছি।

‘গোধূলি আলাপ’-এর নায়িকা সমু সরকার। বিপরীতে কৌশিক সেন।

‘গোধূলি আলাপ’-এর নায়িকা সমু সরকার। বিপরীতে কৌশিক সেন।

প্রশ্ন: এক ঝাঁক তারকার মাঝে নতুন নায়িকা সোমু সরকার, দর্শকদের চোখ আরাম পাবে বলে?

রাজ: পরিচিত মুখ নিলে দর্শকদের চোখে তিনি আগের ধারাবাহিকের মুখ হয়েই হয়তো ধরা দিতেন। এ দিকে নায়িকা নোলক, গ্রামের মেয়ে। বহুরূপী তার পেশা। ফলে, সেই বিষয়টি ফোটাতেও নতুন মুখ দরকার ছিল। নতুন নায়িকা নতুন চরিত্র সহজে তুলে ধরতে পারবেন। সেই জন্যও সাধারণত প্রধান চরিত্রে তারকাকে নিয়ে তাঁর বিপরীতে নতুন মুখ রাখা হয়। এবং সোমু খুব ভাল অভিনেত্রী। ও অনায়াসে নোলক হয়ে উঠেছে।

প্রশ্ন: তার মানে রাজের আগামী ছবির নায়িকা সোমু?

রাজ: (একটু থমকে) সোমুর কাঁধে এখন অনেক বড় দায়িত্ব। ও আগে ‘নোলক’ হয়ে ছোট পর্দায় নিয়মিত হোক। অনেক দিন পর্যন্ত এই চরিত্রে অভিনয় করতে হবে। তার পরে শুধু আমার কেন, বাংলার সমস্ত পরিচালকদের ছবিতে ও অভিনয় করবে। সেটা আমি এখন থেকেই বুঝতে পারছি। সোমু অভিনয় বোঝে, ফুটিয়েও তোলে সহজে। ওর উন্নতি কেউ আটকাতে পারবে না।

প্রশ্ন: রাজ চক্রবর্তীর ‘কপালকুণ্ডলা’, ‘ফেলনা’ও শুরুতে সাড়া ফেলে পরে স্তিমিত, ‘গোধূলি আলাপ’-এর উপরে ভরসা আছে?

রাজ: ‘ফেলনা’ কিন্তু এক বছরের উপরে চলেছে। আর আমরা যে পেশায় রয়েছি সেখানে ভয় পেলে চলবে না। শুধু মন দিয়ে কাজটা করে যেতে হবে। আমিও তাই ভয় পাচ্ছি না। কাজ করে যাচ্ছি। দর্শকের কোনটা ভাল লাগবে সেটা স্বয়ং ঈশ্বরও বোধহয় জানেন না। আমার লক্ষ্যই তাই, অন্য স্বাদের ভাল গল্প বলা। আমার শো ‘রাগে অনুরাগে’, ‘কাজললতা’ কিন্তু যথেষ্ট জনপ্রিয় ছিল। ছবির পাশাপাশি তাই ছোট পর্দাতেও আমার প্রযোজনা সংস্থা নিয়মিত কিছু না কিছু করেই। ধারাবাহিক, রিয়্যালিটি শো ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দর্শকদের উপহার দেয়। খুব শিগগিরি সিরিজও আনতে চলেছি।

প্রশ্ন: বাকি ধারাবাহিকের সঙ্গে টেক্কা দিয়ে প্রথম সপ্তাহের রেটিং চার্টে প্রথম পাঁচে থাকবে ধারাবাহিক?

রাজ: নিশ্চয়ই থাকবে। আগামী সপ্তাহের রেটিং চার্ট সেটা প্রমাণ করে দেবে। কোথাও খামতি থাকলে আমরা অবশ্যই সেটা পূরণ করে দেব। ভাল পারিবারিক গল্প, গান, নাটক, তারকার সমাবেশ, ভাল অভিনয় একটা ধারাবাহিকের স্তম্ভ হলে ফলাফল ভাল হতে বাধ্য।

প্রশ্ন: ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ কিন্তু ‘ধর্মযুদ্ধ’ মুক্তির আবহ তৈরি করে দিয়েছে, এ বার ছবিটি মুক্তি পাবে?

রাজ: ‘ধর্মযুদ্ধ’ কোনও একটি শ্রেণির কথা বলবে না। গোটা দেশ এবং দেশবাসীর কথা বলবে। সমস্ত ধর্মের কথা বলবে। তাই যখন তখন ছবির মুক্তি সম্ভব নয়। তার আগে মুক্তি পাবে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়-শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় অভিনীত ‘হাবজি গাবজি’। সব ঠিক থাকলে ৩ জুন ছবিটি আসবে প্রেক্ষাগৃহে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE