কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল (কেআইএফএফ)-এ গৌতম হালদারের ‘নির্বাণ’ ছবিটির ইন্টারন্যাশনাল প্রিমিয়ারে উপস্থিত থাকবেন রাখি, গুলজ়ার এবং মেঘনা গুলজ়ার। মতি নন্দীর ‘বিজলিবালার মুক্তি’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এই ছবিটি দেখানো হবে নন্দনে, যেখানে ফেস্টিভ্যালের সময়ে সাধারণত বিদেশি ছবি দেখানো হয়।

গৌতম হালদারের কথায়, ‘‘নন্দন কর্তৃপক্ষ আমাকে অনুরোধ করেন, প্রিমিয়ারে যদি রাখিজি, গুলজ়ারজি এবং মেঘনা আসেন। রাখিদিকে তখন সেটা জানালাম। শুনে উনি বললেন, ‘এই ছবিটার জন্য তুই আমাকে যা বলবি, আমি শুনব। তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে আমন্ত্রণ জানালে নিশ্চয়ই যাব।’ আমি ওঁদের সেটাই জানাই এবং ওঁরা সরাসরি রাখিদির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। গুলজ়ারজি নিজেই বলেছেন, এর আগে ওঁরা দু’জনে একসঙ্গে কোনও অনুষ্ঠানে স্টেজ শেয়ার করেননি। তিনজনের উপস্থিতিকে সম্মান জানিয়ে ছবিটি নন্দনের মূল প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হচ্ছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরদিন ‘নির্বাণ’ দেখানো হবে।’’ নভেম্বরে গোয়ায় আয়োজিত পঞ্চাশতম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ ইন্ডিয়া (ইফি)-তেও ‘নির্বাণ’ দেখানো হবে।

গৌতম হালদারের এই ছবিটি দ্বিভাষিক (বাংলা ও হিন্দি) এবং তৈরি করতেও লেগেছে দীর্ঘ সময়। ছবির বাজেটও বেশি। পরিচালক এ প্রসঙ্গে বললেন, ‘‘ছবিটা করতে গিয়ে বহু দেনা হয়ে গিয়েছে। তাই কেউ কিনলেই রিলিজ় করার কথা ভাবব। ‘নির্বাণ’ বিভিন্ন ফেস্টিভ্যালে ঘুরবে। ফলে ক্রেতার লাভই হবে। আর কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে আমাকে যে সম্মান দেখানো হয়েছে, তাতে আমার মনে হয়েছে, যে ভাবে একটা ছবি মুক্তি পায়, তার চেয়ে এই ছবিতে এক অন্য মাত্রা যুক্ত হল।’’