• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিতর্কের মধ্যেই ‘ভালবাসার রাস্তা’র নতুন ঠিকানা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড আলিয়া

alia bhatt
আলিয়া

তাঁকে ঘিরে বিতর্ক চলছেই। উড়ে আসছে মিম। হচ্ছেন ট্রোল। এরই মধ্যে আরও এক বার সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হলেন ভট্ট পরিবারের কনিষ্ঠ সদস্য আলিয়া ভট্ট।

বৃহস্পতিবার তাঁর আগামী ছবি ‘সড়ক ২’-এর মুক্তির তারিখ জানান আলিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লেখেন, “আগামী ২৮ অগস্ট, ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পেতে চলেছে ‘সড়ক ২, আ রোড টু লাভ’। ব্যাস, এর পরেই শুরু ট্রোলিং।

নেটাগরিকদের একাংশ সাফ জানিয়ে দেন, ১৪ জুনের আগে ছবিটি নিয়ে তাঁরা উচ্ছ্বসিত থাকলেও স্টারকিড আলিয়ার নয়া ছবি নিয়ে এই মুহূর্তে বিন্দুমাত্র উৎসাহিত নন তাঁরা। তাঁর বাবা মহেশ ভট্টকে নিয়েও উড়ে আসতে থাকে একের পর এক বিরূপ মন্তব্য। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড হতে থাকে #বয়কট সড়ক ২। টুইটারে ট্রোলড হলেও ইনস্টাগ্রামে নিজের কমেন্ট সেকশন আলিয়া আগেই সাধারণের জন্য বন্ধ করায় ট্রোলিংয়ের এন্ট্রি হয়নি সেখানে। বরং বিপাশা বসু লিখেছেন, ‘অনেক শুভেচ্ছা, ভালবাসা’। শুভেচ্ছাবার্তা এসেছে পরিচালক জোয়া আখতারের তরফ থেকেও।

 

গত ১৪ জুন সুশান্ত সিংহ রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যুর পর স্বজনপোষণের যে তথ্য সবচেয়ে বেশি প্রকট হয়েছিল তাতে নাম জড়িয়েছিল আলিয়ার। একে তাঁর ফিল্মি পরিবার, অন্য দিকে কর্ণ জোহরের হাত ধরেই তাঁর ইন্ডাস্ট্রিতে হাতেখড়ি। এই দুই কারণের জন্যই সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটাগরিকদের বিরাগভজন হয়েছিলেন ‘ডিম্পল গার্ল’। হুহু করে কমেছিল ইনস্টাতে তাঁর অনুরাগীর সংখ্যা।

তাঁর বাবা মহেশ ভট্টও নেটাগরিকদের রোষানল থেকে রেহাই পাননি। সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে তাঁর কিছু ছবি ভাইরাল হয়েছিল ফেসবুক, টুইটারে। মহেশ এবং রিয়ার সম্পর্ক নিয়েও হয়েছে জলঘোলা। এ দিকে আবার ‘সড়ক, ২’ –এর প্রযোজক ভট্ট পরিবারের প্রযোজনা সংস্থা ‘বিশেষ ফিল্মস’। পরিচালক মহেশ নিজেই। রয়েছেন তাঁর বড় মেয়ে পূজা ভট্টও। সব মিলিয়ে নেটাগরিকদের একটা বড় অংশের দাবি, এই ছবি দেখা মানে আবারও স্বজনপোষণকেই লালন করা।

২৮ অগস্ট সত্যিই নেটাগরিকদের রোষে ‘সড়ক ২’-এর দর্শক সংখ্যা কমবে কি না তা অবশ্য সময়ই বলবে।

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন